হারিয়ে যেতে পারেন হলুদ সমুদ্রে

প্রকাশের সময় : 2020-09-03 17:50:26 | প্রকাশক : Administration
হারিয়ে যেতে পারেন হলুদ সমুদ্রে

শ্রাবণী হালদারঃ দিগন্তে যতদূর চোখ যায় যেন হলুদ এক নদী একে-বেঁকে বয়ে চলেছে। অথবা সবুজ মাঠের বুকে দিগন্তজুড়ে বিছানো কোনো হলুদরঙা কার্পেট। শীত আর সরিষাফুল যেন একে অন্যের পরিপূরক। পৌষের রোদমাখা কোনো একদিনে আপনিও চলে যেতে পারেন শহর ছেড়ে একটু দূরে। যেখানে মহাসড়কের পাশেই চোখে পড়বে হলুদ-সবুজের নয়নাভিরাম দৃশ্যপট। সরিষা ক্ষেতের কাছে গিয়ে দেখতে পাবেন ফুলে ফুলে মৌমাছি, প্রজাপতি ও ছোট ছোট পাখিদের ওড়াওড়ি। ফুলের গন্ধে, আবেশে চোখ বুজে মুহূর্তেই আপনি হারিয়ে যেতে পারবেন শৈশব-কৈশোরে মাঠে মাঠে দুরন্তপনার দিনগুলোতে। তবে প্রকৃতির সৌন্দর্য্য উপভোগ করার পাশাপাশি একটুখানি খেয়াল তো করতেই হবে যেন ফসলের ক্ষতি না হয়।

ঢাকার খুব কাছে সরিষা ফুলের সৌন্দর্যের রাজ্য চোখে পড়বে মানিকনগর, সাভার ও মানিকগঞ্জে। ঢাকার হেমায়েতপুর থেকে সিঙ্গাইরের রাস্তা ধরে কিছুদূর গেলে ধলেশ্বরী ব্রীজ। সেটা পেরিয়ে বিন্নাডিঙ্গি বাজার থেকে বাঁয়ের সড়কে কয়েক কিলোমিটার চললেই মানিকনগর। সিঙ্গাইরে সড়কের দুইপাশে পাওয়া যাবে বিস্তীর্ণ সরিষা ক্ষেত। মানিকগঞ্জের হরিরামপুর কিংবা ঝিটকা, বাইপাইল, বায়রা, শিবপুর এলাকায়ও আছে প্রচুর সরিষা ক্ষেত।

ঢাকার কাছে সরিষা ফুলের আরেক রাজ্য মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার সাতগাঁও। জায়গাটি ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক লাগোয়া। এ জায়গাও সরিষাফুলে ছেয়ে থাকে এখন। তবে এখানকার সরিষা ক্ষেতে দেখা পাবেন মৌচাষিদের। তাই ভ্রমণের সঙ্গে দেখে নিতে পারবেন মধু চাষের কলা-কৌশলও। এছাড়া মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীর সোনারং এলাকায়ও আছে প্রচুর সরিষা ক্ষেত।

মুন্সীগঞ্জের আড়িয়াল বিল কিংবা সোনারঙ এলাকায়ও আছে প্রচুর সরিষা ক্ষেত। ঢাকা থেকে খুব সকালে গিয়ে সারাদিন বেড়িয়ে সন্ধ্যার মধ্যেই ফিরে আসা সম্ভব। বাংলাদেশের কৃষকেরা রবি মৌসুমে অর্থাৎ মধ্য কার্তিক থেকে অগ্রহায়ন মাসের প্রথম সপ্তাহ (মধ্য নভেম্বর) পর্যন্ত সরিষার বীজ বপন করে থাকেন। শীতকালে ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসে তাই গ্রামের মাঠে মাঠে হলুদের সমারোহ দেখতে পাওয়া যায়। - ভোরের কাগজ

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com