অমিত সম্ভাবনার তারুণ্যশক্তি

আরাফাত শাহীনঃ একটি দেশের তরুণরাই সবচেয়ে বড়ো সম্পদ। দেশের যে কোনো বিপদাপদ এবং ক্রান্তিকালে সবার আগে এই তরুণেরা জীবনের মায়া ত্যাগ করে বুক চিতিয়ে এগিয়ে আসে। তরুণদের অফুরন্ত প্রাণশক্তি ব্যবহার করে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে একটি দেশ। তবে সবার আগে এই তারুণ্যশক্তির সুষম ব্যবহার নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

পৃথিবীতে মানুষের মুক্তির জন্য যত আন্দোলন-সংগ্রাম হয়েছে সেখানে তরুণেরাই মূলত মুখ্য ভূমিকা পালন করেছে। দুনিয়া কাঁপিয়ে দেওয়া ফরাসীবিপ্লব এবং রুশবিপ্লবে আত্মাহুতি দেওয়ার জন্য লাখো তরুণ যদি তখন এগিয়ে না আসত তবে ফরাসী এবং রুশ দেশের মানুষ আজও মানুষের দাসত্বের শ ......

আত্মসচেতনতা উন্নয়নের বড়ো শক্তি

দেশ উন্নয়নের জন্য বড়ো শক্তি হলো আত্মসচেতনতা। আত্মসচেতনতাই পারে উন্নয়নকে গতি থেকে গতিশীলে পরিণত করতে। আমাদের আত্মসচেতনতাই পারে পুরো দেশের চিত্র বদলে দিতে। এখানে আমি কিছু কথা বলে রাখি; কিছুদিন আগে আমি ও আমার পিএইচডির সুপারভাইজার বাংলাদেশে এসেছিলাম। আমি তাকে ঢাকাসহ গ্রামের কিছু জায়গায় নিয়ে গিয়েছিলাম। আমার দেশের উন্নয়ন ও প্রাকৃতিক দৃশ্য এবং আমাদের দেশের স্কুলকলেজ, ইউনিভার্সিটি এবং মানুষের আচরণ দেখে মুগ্ধ হয়েছিল।

তবে মজার বিষয় হলো আমার সুপারভাইজার বাংলাদেশে আসার আগে বাংলাদেশ সম্পর্কে যে ধারণা ছিল, তা বাংলাদেশে আসার পর ধারণাটা পুরোটাই পালটে গিয়েছিল। তিনি ......

মোবাইল ফোনে আসক্ত

সিমেক ডেস্কঃ নিঃসন্দেহে মোবাইল ফোন এ সময়ে একটি নিত্যসঙ্গী এবং গুরুত্বপূর্ণ ডিভাইস। তবে ফোনে অতি আসক্তি এক ধরনের রোগ। যারা ফোন হাতে না থাকলে বা ফোনের চার্জ শেষ হলেই অস্থির হয়ে যান, বিজ্ঞানীরা বলছেন তারা ‘নোমোফোবিয়া’য় আক্রান্ত। চিনে নিন মোবাইলে আসক্তির কিছু লক্ষণঃ

১. ফোন থেকে পাঁচ মিনিটও দূরে থাকতে অসহ্য লাগছে! ফোন যেন আপনার একটা অংশ হয়ে গেছে। হাতে, পকেটে, ব্যাগে না থাকলে অথবা দূরে চার্জে থাকলে উদ্ভট লাগে। বাসার বাইরে গিয়ে ফোন নেই মনে পড়লে চমকে উঠছেন, আর যত দেরিই হোক না কেন, স্কুল-কলেজ অথবা কাজে যেতে, ফোন আনতে বাসায় ছুটছেন আবার।

২. ফোন খুঁজে না পেলে আঁ ......

ভালবাসা রং বদলায়

সিমেক ডেস্কঃ সুবর্ণা মুস্তফার সাথে একবার হুমায়ুন ফরিদীর প্রচণ্ড ঝগড়া হলো, রাগ করে সুবর্ণা অন্য রুমে গিয়ে দরজা আটকে শুয়ে পড়লেন। সুবর্ণা সকালে উঠে দরজা খুলে দেখেন, যেই রুমে ঝগড়া হয়েছিল, সেই রুমের মেঝে থেকে ছাদের দেয়াল পর্যন্ত একটি কথাই লিখে পুরো রুমকে ভরে ফেলা হয়েছে, কথাটি হল- 'সুবর্ণা, আমি তোমাকে ভালোবাসি'।

এতো ভালোবাসাও তাদের বিচ্ছেদ ঠেকাতে পারেনি, ২০০৮ সালে ডিভোর্স হয়। কারণ ভালোবাসা রং বদলায়..! জীবনানন্দ দাশ লিখেছিলেন- 'প্রেম ধীরে মুছে যায়; নক্ষত্রেরও একদিন মরে যেতে হয়।' এই জীবনানন্দকে একবার দেখেই বিয়ের পিঁড়িতে বসে লাবণ্য প্রভা। সাহিত্যের ছায়া থেক ......

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com