চিনিযুক্ত পানীয় থেকে কিডনির ক্ষতি

প্রকাশের সময় : 2019-10-09 18:38:39 | প্রকাশক : Administration
চিনিযুক্ত পানীয় থেকে কিডনির ক্ষতি

সিমেক ডেস্কঃ  কোমল পানীয় কিংবা চিনিযুক্ত পানীয় বা চিনিযুক্ত ফলের শরবত- বৃক্করোগের কারণ হতে পারে। স্বাস্থ্য বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স ব্লুমবার্গ স্কুল অফ পাবলিক হেলথ’য়ের গবেষকরা জানান- চিনিযুক্ত ফলের শরবত, সোডা এবং অন্যান্য পানীয় নিয়মিত পান করার সঙ্গে ‘ক্রনিক কিডনি ডিজিজ (সিকেডি)’তে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

তাদের গবেষণায় এরকম ফলাফলই পাওয়া গিয়েছে। চিনি মেশানো পানিও এই ঝুঁকিপূর্ণ পানীয়র মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করেছেন গবেষকরা।

তারা বলেন, “গবেষণায় অংশ নেওয়া রোগীদের কয়েকজন বিভিন্ন ধরনের পানি গ্রহণ করার ব্যাপারে জানিয়েছেন, এর মধ্যে রয়েছে ‘ফ্লেইভারড’ বা কৃত্রিম স্বাদযুক্ত পানীয় এবং ‘সুইটেনড’ বা মিষ্টি-পানীয়।

যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স ব্লুমবার্গ স্কুল অফ পাবলিক হেলথ’য়ের সহকারী অধ্যাপক কেইসি রেভলজ বলেন, “বাজারে যেসব কোমল পানীয় প্রতিদিন বিক্রি হচ্ছে এবং মানুষ বছরের পর বছর ধরে পান করে আসছে সেগুলো স্বাস্থ্যের উপর ঠিক কী ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে সে বিষয়ে গঠনমূলক তথ্যের অভাব রয়েছে। বিশেষ করে কোন ধরনের পানীয় থেকে বৃক্কের রোগ হওয়ার আশঙ্কা আছে সে বিষয়ে তথ্য আছে খুবই সামান্য।”মোট ৩ হাজার ৩ জন সুস্থ বৃক্কের নারী-পুরুষ নিয়ে এই গবেষণা চালান গবেষকরা। ফলাফলে দেখা যায়, এদের মধ্যে ১৮৫ জন বা ৬ শতাংশ আক্রান্ত হয়েছেন সিকেডি’তে। ‘ক্লিনিকাল জার্নাল অফ দ্য আমেরিকান সোসাইটি অফ নেফ্রোলজি’তে প্রকাশিত হওয়া এই গবেষণার ফলাফল থেকে আরও জানানো হয়, যারা নিয়মিত অতিরিক্ত মাত্রায় চিনিযুক্ত কোমল পানীয় পান করেন, তাদের এই রোগে আক্রান্তের সম্ভাবনা যারা স্বাভাবিক মাত্রায় পান করেন তাদের তুলনায় ৬১ শতাংশ বেশি। -সূত্রঃ অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com