রক্ত খাওয়া হারাম হলে কলিজা কেন নয়?

প্রকাশের সময় : 2019-11-21 12:02:34 | প্রকাশক : Administration

হুমায়ুন আইয়ুবঃ অপবিত্র ও জীবানুযুক্ত বস্তু খাওয়া বা পান করা ইসলামে নিষেধ। হালাল প্রাণীর মাংস খাওয়া, কলিজা খাওয়া ইসলাম অনুমোদিত। আল্লাহ তাআলা বলেন, হে মানুষ, জমিনে যা আছে, তা থেকে হালাল ও পবিত্র বস্তু আহার কর এবং শয়তানের পথ অনুসরণ করো না। নিশ্চয় সে তোমাদের জন্য সুস্পষ্ট শত্র“। সূরা বাকারা : ১৬৮।

আল্লাহ তায়ালা মহানবী (সাঃ) হালাল-হারামের বিবেচনার ক্ষমতা প্রদান করে বলেছেন, তিনি উম্মতের জন্য পবিত্র বস্তু হালাল করেন আর অপবিত্র বস্তু হারাম করেন। সূরা আরাফ : ১৫৭

আজকের বিজ্ঞান আমাদের কোরআন বুঝতে সহযোগীতা করেছে। রক্ত অপবিত্র। রক্তে প্রচুর পরিমাণ জীবানু থাকে। রক্তে খুব সহজে জীবানু উৎপন্ন হয়। রক্ত পান করা স্বাস্থের জন্য বিপদজনক। বিজ্ঞান বলে রক্ত হচ্ছে জীবানু উৎপাদনের উর্বর ক্ষেত্র। রক্ত অপবিত্র ও মানুষের জন্য ক্ষতিকর তাই রক্ত পান করা ইসলামে নিষিদ্ধ।

কোরআন বলছে, তোমাদের জন্য হারাম করা হয়েছে মৃত প্রাণী, রক্ত ও শূকরের গোশত এবং যা আল্লাহ ছাড়া ভিন্ন কারো নামে জবেহ করা হয়েছে, গলা চিপে মারা জন্তু, প্রহারে মরা জন্তু, উঁচু থেকে পড়ে মরা জন্তু, অন্য প্রাণীর শিঙের আঘাতে মরা জন্তু এবং যে জন্তুকে হিংস্র প্রাণী খেয়েছে, তবে যা তোমরা জবেহ করে নিয়েছ তা ছাড়া, আর যা মূর্তি পূজার বেদিতে বলি দেয়া হয়েছে এবং জুয়ার তীর দ্বারা বণ্টন করা হয়, এগুলো খাওয়া অপরাধ। সূরা মায়েদা : ৩

রক্ত অবৈধ হওয়ার ব্যাপারে কোরআনের স্পষ্ট বক্তব্য আছে। জমাটবাধা রক্তের সমষ্টিই তো কলিজা। রক্ত হারাম হলে যৌক্তিকভাবে কলিজাও  তো হারাম হওয়া প্রয়োজন। কিন্তু না কলিজা খাওয়া হালাল। সম্পূর্ণ বৈধ। যুক্তির বিচারে বললে, কলিজা নিজে শুধু পবিত্র না বরং রক্ত বিশুদ্ধ করার দায়িত্বও তার। রক্তকে পরিস্কার ও জীবানুমুক্ত করা কলিজার কাজ। বিজ্ঞান বলছে, কলিজায় কোনো জীবানু নেই এবং তা উপকারী। পবিত্র ও উপকারি বস্তুতো হালাল হওয়াই উচিত। বিজ্ঞানময় ইসলামের পতাকাবাহী মহানবী সাঃ বলেছেন, আমাদের জন্য দুটি মৃত প্রাণী এবং দুই প্রকার রক্ত হালাল করা হয়েছে। দুটি মৃত প্রাণী হচ্ছে মাছ ও পঙ্গপাল, আর দুই প্রকার রক্ত হচ্ছে কলিজা ও প্লীহা। মুসনাদে আহমাদ

হালের সাস্থ্য বিজ্ঞান বলছে, প্লীহা হলো, উদরের বামভাগের উপরদিকে অবস্থিত একটি অঙ্গ। এটি লসিকাতন্ত্রের এবং রক্ত সংবহন তন্ত্রের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। রক্তের রিজার্ভার বলা যায়।

ইসলামি শরিয়তের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হলো, রক্ত অপবিত্র ও ক্ষতিকর তাই অবৈধ। কলিজা উপকারী ও পবিত্র তাই হালাল।

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com