নীরব ঘাতক অস্টিওপরোসিস (Osteaporosis)

প্রকাশের সময় : 2019-12-04 10:44:38 | প্রকাশক : Administration
নীরব ঘাতক অস্টিওপরোসিস  (Osteaporosis)

সিমেক ডেস্কঃ অস্টিওপরোসিস বা হাড়ক্ষয় বলতে শরীরের হাড়ের ঘনত্ব কমে যাওয়াকে বুঝায়। এতে হাড় ঝাঁজরা বা স্তুরকো হয়ে যায় বা যাতে অতিদ্রুত ভেঙ্গে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। মারাত্নক হাড়ক্ষয়ে হাঁচি বা কাঁশি দিলেও তা ভেঙ্গে যেতে পারে। পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, সারা বিশ্বে ৫০ বছরের অধিক বয়সের প্রতি তিন নারীর মধ্যে একজন এবং প্রতি পাঁচ পুরুষের মধ্যে একজন অস্টিওপরোসিসে আক্রান্ত হয়। অর্থাৎ নারীদের মধ্যেই এ রোগের ঝুঁকি বেশি।

কারা আক্রান্তের ঝুঁকি বেশিঃ সাধারণত বয়স্ক পুরুষ এবং মেনোপজ পরবর্তী নারীদের হার ক্ষয়ের ঝুঁকি বেশি। যারা নিয়মিত পরিমান মতো Ca, Zn I Vit-D ইত্যাদি গ্রহন করে না, ধূমপান ও মদ্যপান করেন এবং মেনোপজ  পরবর্তী মহিলাদের ইস্ট্রোরন ও টেস্টোস্টেরন হরমোনের মাত্রা কমে গেলে হাড় ক্ষয়ের প্রবণতা বাড়ে। তাছাড়া বিভিন্ন ঔষধের পার্শপ্রতিক্রিয়াও হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি থাকে।

উপসর্গঃ প্রথমত কোন শারীরিক লক্ষণ নাও থাকতে পারে। তবে কোমর বা পিঠে বা অন্য কোথাও ব্যথা, বিশেষ করে তা ব্যথানাশকে কমছে না, এমন চরিত্রের। কারও কারও দৈহিক উচ্চতা কমে থাকে, কুজো হয়ে যাওয়া বা সামনে ঝুঁকে থাকা। তবে সবচেয়ে মারাত্নক ব্যাপার হলো, মেরুদন্ডে ফাটল বা চিড় ধরা বা সামান্য আঘাতেই হাড় ভাঙ্গা।

শনাক্তকরণঃ অনেক রকম পরীক্ষা নিরীক্ষার দরকার হতে পারে। তবে হাঁড়ের ঘনত্ব পরিমাপের জন্য এবং কিছু ঝুঁকি চিহ্নিত করার জন্য BMD  à¦ªà¦°à§€à¦•à§à¦·à¦¾à¦Ÿà¦¿ সবচেয়ে ভাল। 

প্রতিরোধঃ হাঁড় ক্ষয় রোগ প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ করাটা উত্তম। নিয়মিত হাঁটাচলা এবং ব্যায়াম করুন। Ca- এর জন্য নিয়মিত মাছ, মাংস, ডিম, দুধ ও দুগ্ধ জাতীয় খাবার গ্রহন করুন। ব্যথা কমানোর জন্য সঠিক ফিজিওথেরাপি নিতে পারেন। কারো অস্টিওপরোসিসের ব্যথায় কোন ব্যথানাশক ঔষধ কাজ করে না। তাই প্রয়োজনে ফিজিওথেরাপি নেওয়া উত্তম।

লেখক - ফিজিওথেরাপিস্ট  

ডাঃ মোঃ ফয়সাল আহমেদ (পি.টি)                                                                           

শিন - শিন জাপান হাসপাতাল

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com