আমরা স্বার্থপর, তাই গুজবে কাবু হই

প্রকাশের সময় : 2019-12-04 10:56:53 | প্রকাশক : Administration

খালেদ মুহিউদ্দিনঃ পেয়াঁজ নিয়ে হাহাকারের পর এবার লবণ। যদিও সরকার প্রেসনোট দিয়ে জানাচ্ছে- আমাদের যা দরকার তার থেকে কয়েকগুণ লবণ মজুদ রয়েছে। কিন্তু আমার মনে হয় না আমরা সরকারের কথায় বিশ্বাস করছি। সরকারের বা অন্য ক্ষমতাশালীদের কথা বাদ দিন। আমরা নিজেরা ইদানীং নিজেদেরই বিশ্বাস করতে পারি না।

লবণের কথাটাই ধরা যাক। মনে করুন সত্যি সত্যি একটা লবণের সংকট হয়েছে, আমাদের কি এমন কোনো প্রতিবেশী বা আত্মীয়-স্বজন নেই যে আমাকে এক চিমটি লবণ দেবে? মনে হয় নেই, আমাদের কাছে লবণ থাকলে আমরাও নিশ্চয়ই দেবো না। মনে মনে নিজেকে বাহবা দেবো, বাহ! কী বুদ্ধিমান আমি। দশ কেজি কিনেছি লবণের কথা শোনার সঙ্গে সঙ্গে। এখন আমি আর আমার পরিবার শুধু লবণ কিনবো বাকি সবাইকে শিখিয়ে দেবো লবণ ছাড়া রান্না। কী মজাই না হবে।

এ কথা বলছি, কারণ আবার আমরা আমাদের কথায় ফিরে আসি। ধরেন লবণের সংকট, তাই দাম বেড়ে গেছে বা যাচ্ছে। কিন্তু আমি কেন দশ কেজি বা পাঁচ কেজি লবণ কিনছি? কোনো কিছুর সংকট হলে তো আমার কম কেনা উচিত, যাতে করে অন্যেও তা কিনতে পারে। আমরা যে বাজার খালি করে নিজেদের ভাঁড়ার পূর্ণ করতে চাচ্ছি, আমাদের এ মানসিকতার কারণ কী? এর উৎস কোথায়? আমরা কেন এতো স্বার্থপর?

ব্যবসায়ীদের কথায় আসি। ভাই বা বোন, আপনাদের সমস্যাটা কী? আপনারা কি সাধারণ অবস্থাতে কোনো লাভই করেন না? সারাক্ষণই পানি কোনোভাবে ঘোলা হওয়ার অপেক্ষা করতে হয় আপনাদের? রমজানে বেগুনি বেশি খাওয়া হয় বলে বেগুনের দাম বাড়িয়ে দেন, পেঁয়াজের সরবরাহ কমে গেলে কেনা দামের পাঁচগুণে বিক্রি করেন, মোবাইল ফোনের দাম তার কলের দাম কয়েকগুণ রাখেন যতোদিন পারেন।

এগুলো কেমন ব্যবসা? কোনো সৃজনশীলতা নেই, বুদ্ধিমত্তা নেই, পরিশ্রম নেই, খালি ব্ল্যাকমেইলিংই সত্য। তবে আমরা যদি নিজেদের স্বার্থপরতা থেকে বেরিয়ে আসি, তবে গুজব আমাদের কাবু করতে পারবে না বলেই আমার বিশ্বাস? লেখক : প্রধান, ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগ। ফেসবুক থেকে

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com