শসার গুণাগুণ; শসা শুধুমাত্র সালাদ নয়

প্রকাশের সময় : 2019-12-18 11:23:55 | প্রকাশক : Administration
শসার গুণাগুণ; শসা শুধুমাত্র সালাদ নয়

সিমেক ডেস্কঃ শসা আমাদের দেশে সালাদ হিসেবে বেশ জনপ্রিয়। কিন্তু জানেন কি এছাড়াও এর আরও বহু গুনাগুন রয়েছে।

শসার ৯৬ শতাংশই পানি। ফলে এটি শরীরের পানির ঘাটতি পূরণ করে। এটি আমাদের দেহের বর্জ্য ও বিষাক্ত পদার্থ অপসারণে সাহায্য করে। শসায় রয়েছে ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম। যা উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। এর মধ্যে সিলিকা আছে, যা নখ ভাঙ্গা থেকে রক্ষা করে। শরীরের বিভিন্ন সংযোগ টিস্যুকে সুদৃঢ় করতে কাজ করে শসা। সেই সাথে শরীরে ইউরিক এসিডের লেভেল কমায়।

শসার রস আর গাজরের রস মিশিয়ে খেলে ইউরিক এসিড নিয়ন্ত্রণে থাকে। কিডনি ভালো রাখতে তা সহায়ক। অনেক সময় ত্বকে ফোলা ফোলা ভাব হয়, এটি দূর করতেও শসা সাহায্য করে। রোদে পোড়া থেকে ত্বককে রক্ষা করে এবং প্রাকৃতিক টোনার হিসেবে কাজ করে।

শসার আরো কিছু কাজঃ

শরীরের জ্বালাপোড়া কমায়ঃ কখনো কখনো আমরা শরীরের ভেতরে বাইরে প্রচন্ড উত্তাপ অনুভব করি।

এ অবস্থায় একটি শসা খেয়ে নিলে উপকার পাওয়া যাবে। এছাড়া সূর্যের তাপে ত্বকে জ্বালা অনুভব করলে শসা কেটে ত্বকে লাগানো যেতে পারে।

ভিটামিনের চাহিদা পূরণঃ প্রতিদিন আমাদের দেহে যেসব ভিটামিন দরকার হয়, তার বেশির ভাগই শসার মধ্যে রয়েছে। ভিটামিন এ, ভিটামিন বি ও ভিটামিন সি আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

ওজন কমাতেঃ শসায় উচ্চমাত্রায় পানি ও নিম্নমাত্রার ক্যালরিযুক্ত উপাদান রয়েছে। ওজন কমানোর জন্য শসা আদর্শ খাবার হিসেবে কাজ করবে। তাই ওজন কমাতে চাইলে বিভিন্ন ধরনের স্যুপ ও সালাদে বেশি করে শসা ব্যবহার করুন। - সূত্রঃ অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com