আমাদের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করতে পেরেছি কি?

প্রকাশের সময় : 2020-02-12 12:49:18 | প্রকাশক : Administration

কামরুল হাসান মামুনঃ আমাদের সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মূল্য বুঝবেন কখন? কোনো কিছুর মূল্য বুঝতে হলে প্রথমে তার ধনংবহপব বুঝতে হবে। ভারতের আইআইটিগুলো যদি না থাকতো? ইংল্যান্ডে ক্যাম্ব্রিজ আর অক্সফোর্ড যদি না থাকতো? আমেরিকায় যদি এমআইটি, হার্ভার্ড, প্রিন্সটন, স্ট্যানফোর্ড যদি না থাকতো? একটি ভালো বিশ্ববিদ্যালয় মানে প্রতি বছর শত শত ভালো মানের মানুষ বের হওয়া। যাদের অনেকেই আবার ভালো কারিগর হয়ে আরও ভালো মানুষ বানানোর কাজে নিয়োজিত হবে। এভাবেই একটি দেশ সত্যিকারভাবে এগিয়ে যায়।

কেবল জ্ঞান দিয়ে আমেরিকা তথা গোটা বিশ্বকে নাচাচ্ছে। জ্ঞানই আসল পাওয়ার। আমরা কী আমাদের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করতে পেরেছি? একটি ভালো মানের বিশ্ববিদ্যালয় মানে কতো মানুষের স্বপ্নের চাষ? আমাদের ছাত্ররা যখন প্রথম বর্ষে ভর্তি হয় আর চার-পাঁচ বছর পড়ে যখন বের হয়ে যায় তখন দেখি কি পরিবর্তন। What a transformation really । এই ট্রান্সফরমেশন আরও যুগোপযোগী করতে হবে। সেটা করার কোনো ড্রাইভ দেখছি না। বরং আমাদের উল্টো পথে চালানোর ড্রাইভ দেখছি। রাষ্ট্রপতি অভিযোগ করেন যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা পদ-পদবির লবিংয়ে ব্যস্ত। কিন্তু কারা ব্যস্ত বানায়? কেন ব্যস্ত হয়?

সরকার যদি শিক্ষকদের মুলা দেখানো বন্ধ করে দেন তাহলেই শিক্ষার মানের উন্নতির দিকে একটি বড় স্টেপ হবে। যতোদিন দলীয় অন্ধত্ব দেখে পদ-পদবি বণ্টন চলবে ততোদিন শিক্ষার মান ভালো হবে না। যতোদিন শিক্ষা ও গবেষণায় বরাদ্দ না বাড়ানো হবে ততোদিন শিক্ষার মান বাড়বে না। - ফেসবুক থেকে

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com