পান খেয়ে থুতু ফেললে হবে ২ বছরের জেল!

প্রকাশের সময় : 2020-03-11 12:26:09 | প্রকাশক : Administration
পান খেয়ে থুতু ফেললে হবে ২ বছরের জেল!

সিমেক ডেস্কঃ পান বাংলাদেশসহ ভারতীয় উপমহাদেশে জনপ্রিয় খাবারের মধ্যে একটি। আর পান চিবানো অনেকের নিত্যদিনের অভ্যাস। অনেকের পান না খেলে তো কাজেই মন বসতে চায়না! তবে এবার পানখোরদের উপর বেশ কঠোর হচ্ছে প্রতিবেশী দেশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকার।

দীর্ঘদিনব্যাপী অভিযোগ রয়েছে যে, পশ্চিমবঙ্গে যত্রতত্র পান খেয়ে থুতু (পানের পিক) ফেলার কারণে রীতিমত নোংরা অবস্থা রাজ্যটির রাস্তা ঘাট, বিভিন্ন স্থাপনার, এমনকি ধর্মীয় উপাসনালয়েরও।

এমতাবস্থায় যত্রতত্র থুতু এবং পান খেয়ে থুতু (পানের পিক) ফেলার বদ অভ্যাসে লাগাম টানতে  কঠোর আইন জারি করতে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ প্রশাসন।

গত মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের পূর্তমন্ত্রী হিসেবে ফিরহাদ হাকিম তার দায়িত্ব গ্রহণের প্রথমদিনই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পশ্চিমবঙ্গ গড়তে থুতু ফেলা, বিশেষ করে পান খেয়ে থুতু (পানের পিক) ফেলাকে বিধিনিষেধের আওতায় আনার উদ্যোগের কথা জানান। বর্তমানে রাজ্যটিতে  যত্রতত্র থুতু ফেলার জন্য ২০০ রুপি জরিমানার বিধান রয়েছে। এবার এই বিধানকে আরও কঠোর করে আগের চেয়ে জরিমানার পরিমাণ ৫ গুণ  বাড়ানো হচ্ছে। আর পাশাপাশি থুতু ফেলে কোন স্থান/স্থাপনা নোংরা করার অপরাধে ২ বছর পর্যন্ত সশ্রম কারাদন্ডের আইন করা হচ্ছে।

পশ্চিমবঙ্গের গণমাধ্যমের বরাতে জানা যায়, ইতিমধ্যে থুতু ফেলার বদ অভ্যাস দূর করতে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন রেল স্টেশনে ঝটিকা অভিযান চালাচ্ছে রাজ্যটির রেলওয়ে সুরক্ষা বাহিনী (আরপিএফ)। স্টেশনে পান খেয়ে থুতু ফেললেই ৫০০ রুপি তাৎক্ষনিক জরিমানা করা হচ্ছে যাত্রীদের আর শুধু থুতু ফেললে করা হচ্ছে ১০০ রুপি জরিমানা।

প্রসঙ্গত, ভারতে রাস্তাঘাট অপরিচ্ছন্ন করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ রয়েছে ব্রিটিশ আমল থেকেই। ১৮৬৯ সালে লর্ড মেকলে থুথু ফেলে  বা অন্যভাবে রাস্তা নোংরা করার বিরুদ্ধে আইন তৈরি করেন। রাস্তাঘাট নোংরা করলে ভারতীয় দন্ডবিধির ২৬৯ নম্বর ধারায় ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ড হতে পারে। কিন্তু বাস্তবে ভারতে এই আইনের খুব একটা প্রয়োগ দেখা যায় না।

এবার দেখার বিষয়, নতুন আইন করে যত্রতত্র থুতু এবং পান খেয়ে থুতু (পানের পিক) ফেলার বদ অভ্যাসে লাগাম টানতে কতটুকু সফল হতে পারে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। - সুত্রঃ অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com