সঙ্কট কাটিয়ে সচল শিল্প খাত

প্রকাশের সময় : 2020-10-01 11:46:51 | প্রকাশক : Administration
সঙ্কট কাটিয়ে সচল শিল্প খাত

মোঃ শামসুল আলম খানঃ করোনায় সৃষ্ট সঙ্কট কাটিয়ে সচল হয়ে উঠছে দেশের প্রধান প্রধান রফতানি খাত। সরকারের কঠোর নির্দেশনায় প্রতিটি শিল্প প্রতিষ্ঠানে কার্যকর হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি। ফলে শ্রমিকরাও এখন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বজায় রেখেই কাজে যোগ দিচ্ছেন। সেই সাথে করোনাকালীন ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকার পোশাক শ্রমিকসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান দিচ্ছেন।

টানা লকডাউনে এক ধরণের মানসিক চাপ তৈরি হয়েছে। প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যেতে সতর্ক সবাই। কিন্তু দেশের প্রায় ৯০ শতাংশ মানুষ ঘর থেকে বের হন জীবিকার তাগিদে। তাদের প্রশ্ন, করোনা থেকে যদি বেঁচে যান, তাহলে ক্ষুধা মেটাবেন কিভাবে। হোটেল-রেস্টুরেন্ট শ্রমিক, পরিবহন শ্রমিক, দোকান কর্মচারী সব মিলে অনানুষ্ঠানিক সব খাতে প্রায় ৪ কোটি মানুষ কাজ করছেন।

কিন্তু করোনার কারণে স্থবির হয়ে পড়েছিল সব কিছু। এতে কারখানারসহ বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের উৎপাদন আগের তুলনায় অনেক কমে গিয়েছিল। বর্তমানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সতর্কতার সাথে সরব হয়ে উঠছে দেশের শিল্প খাত। ফলে গত কয়েক মাস আগে স্থগিত ও বাতিল হওয়া ক্রয়াদেশ ফের চূড়ান্ত হচ্ছে। যা সামগ্রিকভাবে এ খাতটির করোনা ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার ইঙ্গিত দিচ্ছে।

বর্তমানে বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে চাহিদা মাথায় রেখে নতুন নতুন ভিন্ন ধরণের পণ্য তৈরিতে মনোযোগ বাড়াচ্ছে শিল্প কারখানাগুলো। করোনার কারণে অনেক ক্রেতা অর্ডার বর্তমানে বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে চাহিদা মাথায় রেখে নতুন নতুন ভিন্ন ধরণের পণ্য তৈরিতে মনোযোগ বাড়াচ্ছে শিল্প কারখানাগুলো। করোনার কারণে অনেক ক্রেতা অর্ডার বাতিল করায় গার্মেন্টসসহ অনেক শিল্প প্রতিষ্ঠান শ্রমিকদের বেতন দিতে পারেনি। অনেক প্রতিষ্ঠানে চাকরিচ্যুতির ঘটনাও ঘটেছে। তবে বর্তমানে আবার কাজ শুরু হওয়ায় তারা চাকরি ফিরে পেয়েছেন।

যদিও বর্তমান পরিস্থিতিতে কাজ করা অনেক কঠিন। তবুও জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে কাজ করতেই হবে। করোনা পরিস্থিতিতে শিল্প খাতে স্থবিরতা নেমে এসেছিল। বর্তমানে তা কাটিয়ে উঠতে শুরু করেছে। সরকারের চলমান আন্তরিকতা অব্যাহত থাকলে দেশের শিল্পখাতগুলো খুব সহজেই এ সঙ্কট কাটিয়ে উঠবে আশা করা যায়।

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com