‘টাকা যখন খোলামকুচি’; শ্যাম্পেন দিয়ে স্নান

প্রকাশের সময় : 2018-07-13 12:16:47 | প্রকাশক : Admin

সিমেক ডেস্কঃ লাখ লাখ টাকা নিজেদের শখ পূরণ করার জন্য খরচ করে এমন মানুষের কমতি নেই বিশ্বে। তেমনই একজন হলেন কমালিয়া। যিনি স্নানের জন্য খরচ করেন কোটি টাকা। শুধুমাত্র স্নানের ফেনায় ফুৎকারে উড়িয়ে দেন লাখ লাখ টাকা। বিশ্বাস না হলেও এটাই সত্যি। যেখানে মানুষ খেতে পরতে পায় না এমন অবস্থাও দেখতে পাওয়া যায় সেই দুনিয়াতেই। টাকা পয়সা অপচয়ের এমন খবরও প্রকাশ পায় যা শুনে বা পড়ে হাসা উচিত না রাগ করা উচিত সেই সিদ্ধান্ত নিতেও কখনও কখনও বেগ পেতে হয়।

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ কোটিপতি মোহম্মদ জহুরের স্ত্রী কমালিয়ার জীবনধারণ হিরে জহরত ও শ্যাম্পেনে মোড়া। বিশ্বের সবথেকে দামি শ্যাম্পেন দিয়ে রোজকার স্নানাগার ভরেন কমালিয়া। রোজ লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করে ফেলেন গা ভেজাতে। গলা ভেজাতে নয়। যে শ্যাম্পেন দিয়ে তিনি স্নান করেন তার দাম ৫০০০ টাকা প্রতি বোতল।

দিনে একবার বাথ টাব ভর্তি করেন ওই শ্যাম্পেনের কুড়ি থেকে তিরিশটা বোতল খালি করে। মাস গেলে সেই হিসেব তাহলে কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় একবার ভাবুন। তাঁর স্নানের সময় প্রায় ২০ থেকে ২২ জন পরিচারিকারও প্রয়োজন পড়ে। সব মিলিয়ে মাস গেলে খরচ দাঁড়ায় কোটি টাকার ওপর।

কমালিয়ার হিরেরও খুব শখ। তাই তিনি যে সব ঘড়ি পড়েন তা হিরক খচিত হয়। নিজের স্ট্যান্ডার্ড বজায় রাখার জন্য তাঁর কাছে রয়েছে দশটি ঘর, একটি প্রাইভেট জেট, ৫ মিলিয়ন ইউরো মূল্যের একটি ইয়ার্ট রয়েছে। এছাড়াও কমালিয়া যে চশমা পড়েন তার এক একটির দাম চার লাখ টাকা পর্যন্ত হয়। তাঁর হ্যান্ড ব্যাগের দাম ৯০ লক্ষ টাকা। নিন্দুকেরা কেউ বলেন “টাকার শ্রাদ্ধ করেন কমালিয়া” কেউ আবার তাঁর উজ্জ্বল জীবনযাপনে চোখ ধাঁধিয়ে বলেন “কমাল কি কমালিয়া” - সূত্র অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com