চাঁদের বুকেও আছে বরফ!

প্রকাশের সময় : 2018-09-13 11:10:20 | প্রকাশক : Admin
�চাঁদের বুকেও আছে বরফ!

সিমেক ডেস্কঃ চাঁদের বেশ কিছু এলাকাজুড়ে রয়েছে বরফ। সেই বরফ গলে পরবর্তী সময়ে পানি তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রসিডিংস অব দ্য ন্যাশনাল একাডেমি অব সায়েন্সে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে নাসার বিজ্ঞানীরা এ দাবি করে বলেছেন, চাঁদের পৃষ্ঠে বরফ থাকার নিশ্চিত প্রমাণ পেয়েছেন তাঁরা।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, চাঁদের কালো অংশে অর্থাৎ চন্দ্রপৃষ্ঠের উত্তর ও দক্ষিণ মেরুতে রয়েছে এই বরফ। ভারতের পাঠানো মহাকাশযান চন্দ্রযান-১ এর ২০০৮ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত তোলা ছবি থেকে এ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। অর্থাৎ চন্দ্রযান-১-এর ‘দ্য মুন মিনারোলজি ম্যাপার’ যন্ত্রেই ধরা পড়েছে বরফের অস্তিত্ব।

নাসা তাদের টুইটারে জানিয়েছে, চাঁদের দুই মেরুতেই রয়েছে বরফ। দক্ষিণ মেরুতে বড় বড় গর্তের মধ্যে বরফ জমাট বেঁধে রয়েছে, আর উত্তর মেরুতে বরফ বিক্ষিপ্তভাবে ছড়িয়ে রয়েছে।

নাসার বিজ্ঞানী সারাহ নোবেল রয়টার্সকে জানিয়েছেন, সেখানে ঠিক কতটা পানি রয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। চাঁদের মেরুতে সূর্যের আলো পৌঁছায় না, এই অঞ্চলগুলো গাঢ় অন্ধকার এবং অবিশ্বাস্য রকমের হিমশীতল। তাপমাত্রা সাধারণত মাইনাস ২৬০ ডিগ্রি ফারেনহাইট। এখানে আগেও বরফের উপস্থিতির ইঙ্গিত পেয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা, তবে এবার বিষয়টা আরো স্পষ্ট হলো। তবে চন্দ্রযান-১ দীর্ঘদিন ধরেই নানা ধরনের যান্ত্রিক সমস্যায় ভুগছে। ২০০৯ সালের ২৮ আগস্টের পর থেকে ওই মহাকাশযানের রেডিও সিগন্যাল আসাও বন্ধ রয়েছে। এই বাতিল চন্দ্রযানের পাঠানো তথ্যেই মিলেছে বরফের অস্তিত্বের সন্ধান।

সম্প্রতি নাসার বিশেষ রাডারে ধরা পড়ে চন্দ্রযান-১ এর সেই ছবি। আর সেই মহাকাশযান এখন চাঁদের চারপাশে ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে জানিয়েছেন নাসার বিজ্ঞানীরা। ২০০৮ সালের ২২ অক্টোবর এটি মহাকাশে পাঠানো হয়। এটি এখনো চাঁদের ২০০ কিলোমিটার দূরত্বে ঘুরপাক খাচ্ছে।

চাঁদের বিস্তীর্ণ এলাকায় বরফের অস্তিত্ব দেখতে পাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই চাঁদে পানির সন্ধান পাওয়া নিয়েও আশা বাড়ছে। যদি সত্যিই চাঁদে পানির উপস্থিতি মেলে, তাহলে একদিন চাঁদ বাসযোগ্য হবে। সূত্রঃ সিএনএন

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com