কৃত্রিম চাঁদ তৈরির পরিকল্পনায় চীন!!

প্রকাশের সময় : 2018-11-07 17:51:14 | প্রকাশক : Admin
�কৃত্রিম চাঁদ তৈরির পরিকল্পনায় চীন!!

সিমেক ডেস্কঃ এবার চাঁদও বানাবে চীন। তাও একটা নয়, তিনটি। চীনের সিচুয়ান প্রদেশের চেংডু শহরে অবস্থিত তিয়ানফু নিউ ডিস্ট্রিক্ট সিস্টেম সায়েন্স রিসার্চ ইন্সটিটিউটের প্রধান ইউ চুনফেং জানিয়েছেন, ২০২০ সালের মধ্যে তাঁরা তিনটি কৃত্রিম চাঁদ তৈরি করে ফেলবেন।

জানা গেছে, এই তিনটি চাঁদ কোন কক্ষপথে, কীভাবে রাখা হবে তাও আগামী দু’বছরের মধ্যে সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। তারপর ২০২২ সালে সেই তিনটি কৃত্রিম চাঁদ মহাকাশে পাঠানো হবে। এই চাঁদগুলি আসলে বড় উপগ্রহ, যাতে থাকবে বড় বড় আয়না, যা সূর্যের আলো পৃথিবীতে আরও বেশি ভালো করে প্রতিফলিত করবে।

চুনফেং বলেছেন, এর ফলে ৩৬০ ডিগ্রি অরবিটাল প্লেনের একটি অড্চল ২৪ ঘণ্টাই আলোকিত থাকবে। আয়না থেকে প্রতিফলিত সূর্যালোক প্রায় ৩৬০০-৬৪০০ বর্গফুট এলাকা আলোকিত করবে এবং তার ঔজ্জ্বল্য চাঁদের থেকে প্রায় আটগুণ বেশি হবে। চাঁদ পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে ৩৮০০০০ কিলোমিটার দূর থেকে। আর কৃত্রিম চাঁদগুলি পৃথিবী থেকে ৫০০ কিলোমিটার দূরের কক্ষপথে রাখা হবে বলে সিন্ধান্ত নিয়েছেন চীনা মহাকাশ বিজ্ঞানীরা।

কৃত্রিম চাঁদের ফলে দিনরাতের তারতম্যে ফারাক হয়ে পৃথিবীর জীবনচক্রে বিঘœ ঘটতে পারে বলে মনে করছেন অন্যান্য দেশের বিজ্ঞানীরা। তাদের আশ্বস্ত করে চুনফেং বলেছেন, এই প্রতিফলিত আলো যেহেতু মানুষের তৈরি তাই তা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। এবং কোনও প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঘটলে সেখানে রাতে উদ্ধারকাজে যে বাধা হয় তা আর হবে না। পৃথিবী থেকে এই চাঁদগুলিকে উজ্জ্বল তারার মতোই দেখতে লাগবে বলে জানিয়েছেন তিনি। -সূত্রঃ বিডি-প্রতিদিন

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com