ব্রণ সারাতে ঘরোয়া উপায়

প্রকাশের সময় : 2018-11-07 17:56:42 | প্রকাশক : Admin
ব্রণ সারাতে ঘরোয়া উপায়

সিমেক ডেস্ক: চকচকে ত্বকে হঠাৎ করে গজিয়ে ওঠে একটা ব্রণ। আর সেই একটা থেকে অল্প দিনেই ১০টা। আর তারপর যত সময় এগুতে থাকে, তত ব্রণের সংখ্যা বাড়তেই থাকে। আর এমনটা যখন হতেই থাকে তখন রাতের ঘুম তো ওড়েই, সেই সঙ্গে লেজুড়া হয় ত্বক খারাপ হয়ে যাওয়ার দুশ্চিন্তাও। এমন মানসিক যন্ত্রণায় বারবার জর্জরিত হতে না চাইলে কতগুলো ঘরোয়া টোটকা ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন। এতে ব্রণের প্রকোপ তো কমেই, সেই সঙ্গে ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

এমন কয়েকটি ঘরোয়া উপায় নিয়ে আলোচনাঃ-

তুলসি পাতা ও হলুদঃ

২০টা তুলসি পাতার সঙ্গে ২ চামচ হলুদ গুঁড়ো ভাল করে মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিন। তারপর সেই পেস্টটি প্রতিদিন সকালে এক গ্ল−াস পানিতে হাফ চামচ করে মিশিয়ে খাওয়া শুরু করুন। এইভাবে ১৫-২০ দিন টানা খেলে দেখবেন ব্রণের প্রকোপ কমতে সময় লাগবে না। আর যদি দিনে তিনবার এই পেস্টটি খেতে পারেন, তাহলে তো কথাই নেই!

নিম পাতা ও গোলাপ জলঃ

চটজলদি ব্রণের প্রকোপ যদি কমাতে চান তাহলে নিম পাতা ও গোলাপ জলকে কাজে লাগাতে লেভেল বাড়তে শুরু করে। ফলে ত্বকের সৌন্দর্য বাড়তে সময় লাগে না।

সেলিসেলিক অ্যাসিডঃ

বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, এই উপাদানটিতে রয়েছে এমন ক্রিম যা মুখে লাগাতে শুরু করলে ব্রণের প্রকোপ কমতে সময় লাগে না। তবে এক্ষেত্রে একটি বিষয় মাথায় রাখাটা একান্ত প্রয়োজন; তা হলো এমন ক্রিম বেশি মাত্রায় লাগালে ত্বকের ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই এই বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে।

অ্যালোভেরা জেলঃ

মাঝে মাঝে ব্রণের কারণে সারা মুখ জ্বালা করতে শুরু করে। আর তখনই আমরা খুঁটে ফেলি ব্রণগুলো। ফলে সারা মুখ দাগে দাগ হয়ে যায়। এক্ষেত্রে অ্যালোভেরা জেল ভালো কাজে আসতে পারে। এটি ব্রণের যন্ত্রণা কমানোর পাশাপাশি প্রদাহ কমাতেও সাহায্য করে। সেই সঙ্গে ত্বককে সুন্দর করে তুলতেও এই প্রকৃতিক উপাদানটির কোনো বিকল্প নেই বললেই চলে।

বরফের কেরামতিঃ

ব্রণের প্রদাহ কমাতে আরেকটি জিনিস দারুণ কাজে আসে তা হলো বরফ। মুখের যেখানে যেখানে ব্রণ বেরিয়েছে সেখানে সেখানে বরফ ঘষা শুরু করুন। অল্প দিনেই দেখবেন ফল মিলতে শুরু করেছে।

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com