অদৃশ্য অপরাধী

প্রকাশের সময় : 2018-12-19 10:32:22 | প্রকাশক : Admin

আনসারী মুহম্মদ তৌফিক: ইন্টারনেট নামক এক বিস্ময়কর সমাজ ব্যবস্থার উত্থান ঘটেছে। আমরা হোমো সেপিয়েন্স, মনুষ্য প্রজাতি, একাকী টিকতে পারি না। তাই সর্বাবস্থায় কোন না কোন সম্পর্কে আবদ্ধ হয়ে থাকতে চাই। বলা হয়ে থাকে যে, সমাজ হচ্ছে সম্পর্কের সেই জাল বিশেষ।

অধুনা ইন্টারনেট নামক এক নতুন ধরনের সমাজ উন্মোচিত হয়েছে আমাদের সামনে। যে সমাজে মানুষের দেহগত অবস্থান নেই, যেখানে কেউ কাউকে ছুঁতে পারে না। তারপরও সেই অস্পৃশ্য জগতে ব্যক্তি তার অস্তিত্ব ঘোষণা করছে, নিত্যই কথা বলছে, শুনছে, দেখছে। রক্ত মাংসে গড়া মানুষের অবস্থান ও অস্তিত্ব ঘোষণা করছে কিছু ইলেকট্রনিক উপাদান। বিস্ময়কর নয় কি?

অবাক ব্যাপারই বটে। বিস্ময়ের ঘোর কাটতেই দেখা মিলবে এর বেশ কিছু নেতিবাচক দিক। ইন্টারনেট নামক সমাজ বা যোগাযোগ ক্ষেত্রটি ইন্দ্রীয়গতভাবে অস্পৃশ্য হওয়ায় এখানে  প্রতারণা বা মিথ্যার সুযোগ বেশি। এমন কোন অপরাধ নেই যা ইন্টারনেটের মাধ্যমে হয় না। কারণ সামনাসামনি অপেক্ষা আড়ালে থেকে অপরাধ সংঘটিত করবার সুবিধা অধিক।

ইন্টারনেট জগতে সবই ঘটে থাকে অস্পৃশ্যভাবে, সেখানে ব্যক্তির দেহগত অবস্থানের প্রয়োজন পড়ে না। ফেসবুক বা টুইটারে একটি ছবি আর মোবাইল নম্বর যোগ করলেই খোলা যেতে পারে বিশ্বের যে কারও নামের এ্যাকাউন্ট। একটি মিথ্যা এ্যাকাউন্টের বদৌলতে সাধারণ যে কেউ এক মুহূর্তে হয়ে যেতে পারছে গুরুত্বপূর্ণ কেউ। সুযোগসন্ধানী অপরাধী ব্যক্তিটি অন্য কারও নাম পরিচয় ব্যবহার করে চালিয়ে যাচ্ছে তার অপরাধ কার্যক্রম। গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা তো বটেই, সাধারণ নাগরিকগণও এই প্রতারণা চক্রের বাইরে নয়। যাতে একজন মানুষের জীবন দুর্বিষহ করে তোলা যায়।

                             -কিশোরগঞ্জ

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com