সামাজিক সম্পর্ককে গুরুত্ব দিন

প্রকাশের সময় : 2019-03-27 18:13:56 | প্রকাশক : Administration

এসএম হৃদয় রহমান: বর্তমান সময়ে সামাজিক সম্পর্কের ক্ষেত্রগুলোও বেশ রাজনীতিকরণের মধ্যে পড়ে গেছে। রাজনৈতিক পরিচয়ের বাইরেও যে মানুষে মানুষে সমাজিক সম্পর্ক থাকতে পারে তা আমাদের ভাবতে হবে। ব্যাপক রাজনীতিকরণের কারণে মানুষের সামাজিক সম্পর্কগুলোও হুমকির মুখে পড়ছে।

আমরা জানি, ভারতের যে রাজনৈতিক নেতারা রয়েছেন তাদের একদলের সঙ্গে অপরদলের রাজনৈতিক নেতাদের সামাজিক সুসম্পর্ক রয়েছে, যা চোখে পড়ার মতো। এতে করে অনেকাংশেই তারা নানা রকম রাজনৈতিক সহিংসতা থেকে বেরিয়ে আসতে পারছেন সামাজিক সম্পর্ককে রক্ষার তাগিদে। আমাদের দেশেও যদি রাজনৈতিক সহিংসতাকে পরিহার করার মানসে একদলের রাজনৈতিক নেতারা অপরদলের রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখেন সেক্ষেত্রে দেশের রাজনৈতিক পরিবেশও ভাল থাকে এবং পাশাপাশি সামাজিক পরিবেশও ভাল থাকে।

দেশের প্রতিটি কাজ রাজনীতির সঙ্গে অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িত। সমাজের মানুষের মধ্যে একতা তৈরিতে রাজনৈতিক পরিচয়ের চেয়ে সামাজিক সম্পর্ককে গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত। বাংলাদেশের স্বাধীনতার মূল উদ্দেশ্য ছিল একটি শোষণহীন ও সাম্যের রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা। যে কারণে বাংলাদেশের সংবিধানে মূলনীতি হিসেবে ‘সমাজতন্ত্র’ কথাটি রয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে বিশ্বাসী প্রতিটি রাজনৈতিক দলের নেতাদেরই উচিত হবে সংবিধানের এই মূলনীতিকে গুরুত্ব দিয়ে সাম্যের সমাজ প্রতিষ্ঠায় এগিয়ে আসা। এই ঐক্য তখনই তৈরি হবে যখন স্বাধীনতা সংগ্রামে বিশ্বাসী প্রতিটি মানুষের মধ্যে রাজনৈতিক পরিচয়ের বাইরেও সামাজিক সম্পর্ক তৈরি হবে।

বিগত সময়ে আমরা দেখেছি ক্ষমতার পালাবদল হলেই নানা রকম সংঘাত সহিংসতা হয়েছে দেশে শুধুমাত্র সামাজিক সম্পর্কে ঘাটতি থাকার কারণে। অথচ সামাজের মানুষের মাঝে যখন রাজনৈতিক পরিচয়ের বাইরেও সামাজিক ঐক্য থাকবে তখন দেশের ক্ষমতার পালাবদল হলেও দেশ কোনরকম সহিংসতার মধ্যে থাকার আশংকা থাকবেনা। উল্টো সর্বত্রই শান্তির পরিবেশ বিরাজ করবে। আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত স্বাধীনতা সংগ্রামের চেতনায় বিশ্বাসী প্রতিটি মানুষের সঙ্গে প্রতিটি মানুষের রাজনৈতিক পরিচয়ের বাইরে সামাজিক সম্পর্ক গড়ে তোলা। -ঢাকা কলেজ, ঢাকা

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com