অজানা অপরাধে কুকুরের মৃত্যুদন্ড

প্রকাশের সময় : 2019-04-25 16:57:15 | প্রকাশক : Admin
অজানা অপরাধে কুকুরের মৃত্যুদন্ড

সিমেক ডেস্কঃ একটি কুকুরকে যুক্তরাজ্যের পুলিশ চার বছর ধরে খাঁচায় বন্দি করে রেখেছে। কুকুরটির কাছে কাউকে যেতে দেয়া হচ্ছে না। পুলিশ বলছে, কুকুরটি যাতে হাঁটা-চলা বা শরীর চর্চা করতে না পারে সে জন্য নজরদারিতে রাখা হয়েছে। কিন্তু কেন? পুলিশ তার কারণ বলছে না। কুকুরটির নাম স্টেলা আর তাকে আটক করা হয় ২০১৪ সালে এবং তারপর থেকেই এটিকে ডেভনে ৩ ফুট বাই ৯ ফুটের একটি খাঁচায় বন্দি করে রাখা হয়েছে। কুকুরটি কেন বাইরে হাঁটা-চলা করতে পারবে না সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কারণ না জানিয়ে ডেভন ও কর্নওয়ালের পুলিশ শুধু বলেছে, কুকুরটি খুবই বিপদজ্জক। তারা বলছে, নিরাপত্তা সংক্রান্ত একটি আইনের আওতায় এই কুকুরটিকে আটকে রাখা হয়েছে। তারপর কুকুরটির আচার-আচরণের ওপর এই চার বছর সময় ধরে নজর রাখা হচ্ছে।

কুকুরটিকে হত্যা করার আদেশ অনুমোদন করেছে স্থানীয় একটি ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট। এর বিরুদ্ধে আপিল করার জন্যে স্টেলার মালিককে সময় দেয়া হয়েছে ২৮ দিন। দুই বছর আগে স্টেলার মালিককে যখন অন্য একটি মামলায় আটক করা হয়, সে সময় তাকেও জব্দ করা হয়েছিল। প্রাথমিকভাবে স্টেলার আচার-আচরণ ও জাতের কারণে পুলিশ তাকে বিপজ্জনক বলে ধারণা করেছিল। তবে তার মালিক বলছে, তার কাছে সে খুব স্বাভাবিক ছিল। সে কখনো কারও সঙ্গে সহিংস আচরণ করেনি। এ নিয়ে গত দুই বছর ধরেই কোর্টে মামলা চলছে। শুনানির সময় স্টেলার আচরণের নানা ভিডিও তুলে ধরা হয়েছে। আর এই মামলায় স্টেলার মালিক তাকে ফিরে পেতে ১১বার আদালতে হাজিরা দিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত মালিক হেরে গেছেন এবং আদালত কুকুরটিকে মেরে ফেলার আদেশ জারি করে। -সূত্রঃ অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com