৪০ হাজার বছর পরেও যেন জীবন্ত!

প্রকাশের সময় : 2019-07-11 18:19:33 | প্রকাশক : Administration
৪০ হাজার বছর পরেও যেন জীবন্ত!

সিমেক ডেস্কঃ আজকের যুগের নেকড়ের থেকে চেহারায় প্রায় ২৫ শতাংশ বড়। এক একটা দাঁত প্রায় ১৬ ইঞ্চি লম্বা। প্রায় ৪০ হাজার বছর আগে এধরনের অতিকায় নেকড়ে ঘুরে বেড়াত রাশিয়ার বরফেমোড়া সাইবেরিয়ায়।

সম্প্রতি এমনই এক নেকড়ের মাথা পাওয়া গেছে সাইবেরিয়ার ইয়াকুতিয়া প্রদেশের তাইরেখতিয়াখ নদীর কাছে। প্রাণীবিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, বরফে চাপা পড়ে ছিল বলে নেকড়ের মাথাটি এখনও অবিকৃত রয়েছে। লোম, দাঁত, জিভ, নেকড়ের শরীরের প্রায় সব প্রত্যঙ্গই অক্ষত। ফলে নেকড়েমুণ্ড নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা চালাতে অসুবিধা হচ্ছে না গবেষকদের। ইয়াকুতিয়া অ্যাকাডেমি অফ সায়েন্সের ফনা ম্যামথ স্টাডিজের প্রধান আলবার্ট প্রোটোপোপোভ জানিয়েছেন, এই ধরনের জীবাশ্ম আগে কখনও মেলেনি। আগে  যেসব জীবাশ্ম পাওয়া গিয়েছিল, সেগুলো মূলত নেকড়েশাবকদের। পূর্ণবয়স্ক নেকড়ের দেহের অংশ এই প্রথম পাওয়া গেল।

প্রোটোপোপোভ আরও জানিয়েছেন, মাথাটি নিয়ে রাশিয়া, সুইডেন ও জাপানের বিজ্ঞানীরা একসঙ্গে কাজ করছেন। অবশ্য 'গেম অফ থ্রোনস' টিভি সিরিজের কল্যাণে এমন ধরনের নেকড়ের সঙ্গে অনেক আগেই পরিচিত হয়ে গেছেন। - সূত্রঃ অনলাইন 

 

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
উপদেষ্টা সম্পাদকঃ রফিকুল ইসলাম সুজন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com