জাতীয় সংগীত ও জাতীয় গীত; তফাত কী?

জাফর ওয়াজেদ: তফাত তো একটা রয়েছেই- নাহলে স্বাধীনতার পর প্রথম কেবিনেট কেন তা অনুমোদন করবে। ১৯৭২ সালের ১৩ই জানুয়ারী এইচ টি ইমামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কেবিনেট সচিবদের সভায় “আমার সোনার বাংলা”-জাতীয় সংগীত, “ধনধান্য পুষ্পভরা”-জাতীয় গীত, “চল চল উর্ধ্বগগনে” রণসংগীত হিসেবে অনুমোদিত হয়। পরে মন্ত্রীপরিষদ তা অনুমোদন দেয়।

তিন বড় কবির গান তিনটিই বঙ্গবন্ধুুর প্রিয়। বঙ্গবন্ধুর শাসনামলে রাস্ট্রীয় অনুষ্ঠানে দুটি গানই বাজতো। একটি শুরুতে এবং অপরটি শেষে। জেনারেল জিয়া জাতীয়গীত ধনধান্য’র স্থলে চালু করেন- “প্রথম বাংলাদেশ আমার”। আর বাঙ্গালী ভুলে যায় তার ন্ ......

চিঠিকে দিওনা বিদায়

নাবিল হাসান: প্রাণে প্রাণমেলাতে আর হৃদয়ের গভীরতম কথাগুলো প্রিয়জনের কানে সঙ্গোপনে শুনিয়ে দেওয়াই চিঠির দায়িত্ব ছিল। অবাধ ইন্টারনেট আর প্রযুক্তির এই যুগে চিঠিপত্রের আবেদন যেন আর ধোপে টিকছে না। যুগের পর যুগ মানুষের আবেগ-ভালোবাসার কথাগুলো বাতাসে ভেঁসে বেড়ানোর মতো চিঠির খামে খামে পৌঁছে যেত আপনজনের হাতে।

তীব্র অনভিলষণীয় সেই চিঠি টিমটিমে আলোতে খুব নিবিষ্টমনে বসে বারবার পড়ার যেই মহানন্দ সেই সব কাহিনী আজকাল শুধুই দাদা-দাদির মুখে মুখেই প্রচলিত। মাঝে মাঝে আমার মাকে দেখা যায় সেই পুরনো খাম থেকে আমার বাবার এবং তার বিনিময় করা চিঠিগুলো পড়তে। কখনো কেঁদে কেঁদে সাড় ......

করোনাকে মানিয়ে চলা উচিত

কামরুল হাসান মামুন: করোনাকে মানিয়ে চলে স্বাভাবিক জীবনযাপনে মনোনিবেশ করা উচিত। বোঝাই যাচ্ছে এই প্যান্ডেমিক থেকে সহসা আমাদের মুক্তি নাই। গতকালও ব্রাজিলে এক দিনে ৪০০০ মানুষ করোনায় মারা গেছে। ডেইলি মৃত্যুর সংখ্যা এবং আক্রান্তের সংখ্যা বাংলাদেশেও দ্রুত বাড়ছে। আইসিডিআরবির এক গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফল খুবই দুশ্চিন্তার উদ্রেককারী।

এইবার আক্রান্তরা দক্ষিণ আফ্রিকার ভারিয়ান্টস দ্বারা বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। আমরা আগে থেকেই জানি এই ভ্যারিয়ান্টসের বিরুদ্ধে এস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন তেমন একটা কার্যকর না এবং সেইজন্যই সম্ভবত টিকা যারা দিয়েছেন তারাও আক্রান্ত হচ্ছ ......

বেকার সমস্যা সমাধানে যা প্রয়োজন

মোঃ মশিউর রহমান সহিদ: আইএলওর সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী এশিয়ার দেশসমূহের মধ্যে বেকারত্বের হারের দিক দিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়! প্রতিবছর যে সংখ্যক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে পাশ করে বের হচ্ছে তার অর্ধেককেও চাকরির নিশ্চয়তা দিতে পারছে না সরকার।

সুতরাং বেকারত্বকে খুব কম সময়ে যেসব দেশ সমাধান করেছে সেসব দেশের দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণ করা উচিত। বর্তমান বাংলাদেশের সবচাইতে বড়ো চ্যালেঞ্জ হলো বেকারত্ব সমাধান করা। এজন্য অবশ্যই আমাদের কোরিয়া এবং চীনের দিকে তাকাতে হবে। ১৯৫৪ সালে কোরিয়া সারা বিশ্ব থেকে সাহায্য গ্রহণ করত; মাত্র ৩০ বছরে কোরিয়া সাহায্যদ ......

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সরদার মোঃ শাহীন,
বার্তা সম্পাদকঃ ফোয়ারা ইয়াছমিন,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ আবু মুসা,
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিসঃ ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২,
উত্তরা, ঢাকা,
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com