লেকে ভাগ্য দেখা যায়!

প্রকাশের সময় : 2020-11-26 12:10:53 | প্রকাশক : Administration
লেকে ভাগ্য দেখা যায়!

সিমেক ডেস্কঃ আপনি কী ভাগ্যে বিশ্বাস করেন। তবে ঘুরে আসতে পারেন জাপানের মাশু-কো বা ঈশ্বরের লেকে। যে লেকের পাশে দাঁড়িয়ে আপনি আপনার ভাগ্য দেখতে পারেন। জাপানের গভীরতম ও পৃথিবীর অন্যতম স্বচ্ছ এই লেক নিয়ে এমনই বিশ্বাস জাপানিদের। এই লেক ঘিরে প্রচলিত রয়েছে জাপানিদের নানা লোককথা।

চারিদিকে সুউচ্চ সবুজ পাহাড়ে ঘেরা নীল জলের এই লেকটাই জাপানের পবিত্রতম মাশু-কো বা ঈশ্বরের লেক। যার জন্ম প্রায় ২ হাজার বছর আগে ভয়ঙ্কর আগ্নেয়গিরির উদগীরণে। লেকটির অবস্থান জাপানের অন্যতম দ্বীপ হোক্কাইডোতে। আয়তন প্রায় ১৯ বর্গ কিলোমিটার। সর্বোচ্চ গভীরতা প্রায় সাতশ ফুট।

লেকটির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য স্বর্গীয়। বছরের প্রায় ১০০ দিন বরফে আচ্ছাদিত থাকে। উপরে ভাসতে থাকে সাদা মেঘ। আর লেকের জল এতই স্বচ্ছ যে, ২০ থেকে ৩০ মিটার নিচে পর্যন্ত স্পষ্ট দেখা যায়।

জাপানের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী আইনুদের কাছে বড়ই রহস্যে ঘেরা এই লেক।তারা বিশ্বাস করে এই লেকে একটি দেবীর আত্মা বসবাস করে। দুঃসময়ে অনেকেই এই লেকের পাড়ে এসে মন হালকা করার চেষ্টা করেন।

শুধু তাই নয় আইনুদের বিশ্বাস মতে, এই লেকের উপরিভাগ কেউ যদি দেখতে পান আর তিনি যদি পুরুষ হন তবে তার সাম্প্রতিক কর্মে ব্যর্থতা আসবে। আর যদি নারী হন তবে তিনি আজীবনেও সন্তান জন্ম দিতে পারবেন না।

তাই তো এর পবিত্রতা রক্ষায় এই লেকে সাঁতার কাটা, মাছ ধরা সবই নিষিদ্ধ করেছে জাপান সরকার। শুধু নির্দিষ্ট কয়েকটি পয়েন্টে তৈরী আছে ওয়াচ টাওয়ার। যেখান থেকেই পর্যটকরা লেকটির মনোরম দৃশ্য দেখতে পান। - সুত্রঃ অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com