দ্রুত এগিয়ে চলছে রূপসা রেল সেতুর কাজ

প্রকাশের সময় : 2021-02-03 16:47:26 | প্রকাশক : Administration
দ্রুত এগিয়ে চলছে রূপসা রেল সেতুর কাজ

বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর গত মার্চ মাস থেকে সারাদেশে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। এ পরিস্থিতিতে উন্নয়ন প্রকল্পের কাজগুলোর কার্যক্রমও প্রায় বন্ধ হয়ে যায়। প্রকল্পের কাজ শেষ করা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্প খুলনা-মংলা রেলপথ নির্মাণের কাজও স্থবির হয়ে পড়ে। লকডাউন উঠে যাওয়ার পর থেকে প্রকল্প বাস্তবায়নে আবার গতি ফিরে আসে।

করোনার ধাক্কা কাটিয়ে দ্রুত এগিয়ে চলছে খুলনা-মংলা রেলপথ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ। খুলনা থেকে মংলা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণের কাজ চলছে। একই সঙ্গে রূপসা নদীর ওপর রেল সেতু নির্মাণেও চলছে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ। ইতোমধ্যে এ প্রকল্পের রেল সেতুর কাজ ৮০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। আর মূল প্রকল্পের কাজ ৭৬ শতাংশ হয়েছে।

খুলনা-মংলা রেলপথ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এ অঞ্চলের ব্যবসা-বাণিজ্যে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। মংলা বন্দরে আরও গতি সঞ্চার হবে। মংলা বন্দরের সঙ্গে খুলনাসহ সমগ্র বাংলাদেশের রেল যোগাযোগ সুগম হবে। কম খরচে ভারত, নেপাল ও ভুটানে মালামাল পরিবহন সহজ হবে। বিভিন্ন স্থান থেকে দেশী-বিদেশী পর্যটকরাও সহজে সুন্দরবন ভ্রমণ করতে পারবেন।

খুলনা-মংলা রেলপথ প্রকল্পটির কাজ ৩টি ভাগে বিভক্ত। এর একটি রূপসা নদীর ওপর রেল সেতু, অপরটি রেললাইন এবং অন্যটি টেলিকমিউনিকেশন ও সিগন্যালিং। প্রকল্পের আওতায় লুপ লাইনসহ রেলওয়ে ট্র্যাকের দৈর্ঘ্য ৮৬ দশমিক ৮৭ কিলোমিটার। এর মধ্যে ৬৪ দশমিক ৭৫ কিলোমিটার ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ। রূপসা নদীর উপরে যুক্ত হচ্ছে ৫ দশমিক ১৩ কিলোমিটার রেল সেতু।

এছাড়া ২১টি ছোটখাটো ব্রিজ ও ১১০টি কালভার্ট নির্মাণ এবং খুলনার ফুলতলা থেকে মংলা পর্যন্ত ৮টি স্টেশন নির্মাণের কাজ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এর মধ্যে ভারতীয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান লারসেন এ্যান্ড টুব্রো রূপসা নদীর ওপর রেল সেতুর নির্মাণ কাজ করছে। বাকি কাজ করছে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান ইরকন ইন্টারন্যাশনাল। জমি অধিগ্রহণ, রেললাইন ও রেল সেতু নির্মাণসহ সমগ্র প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয় ৩ হাজার ৮০১ কোটি ৬১ লাখ টাকা।

এদিকে নির্মাণাধীন এক কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের মূল সেতুর পশ্চিম পাড় (খুলনা সাইড) বটিয়াঘাটা উপজেলার পুটিমারী ও পূর্ব পাড় খারাবাদ (মংলা সাইড) এলাকায় চলছে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ। ইতোমধ্যে রেল সেতুর ভায়াডাক্টের ৮৫৬টি পাইলের মধ্যে সব কয়টি, পাইল বেস-গ্রাউটিং ৮৫৬টির সব কয়টি, পাইল ক্যাপ ১৩৬টির মধ্যে ১৩৫টি, পিয়ার ১৩৬টির মধ্যে ১৩৫টি, স্প্যান ইর‌্যাকশান ১৩৬টির মধ্যে ১৩২টি এবং ব্যাক স্লাব ১৩৬টির মধ্যে ৯১টি সম্পন্ন হয়েছে। কোন প্রতিবন্ধকতা দেখা না দিলে ২০২১ সালের মে অথবা জুন মাসের মধ্যে খুলনা-মংলা রেলপথের সেতু প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হবে। -সূত্র: অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com