দেশবরেণ্য ব্যক্তিত্ব আবেদ খান

প্রকাশের সময় : 2021-03-31 14:24:53 | প্রকাশক : Administration
দেশবরেণ্য ব্যক্তিত্ব আবেদ খান

আবেদ খান। স্বনামধন্য সাংবাদিক, কলাম লেখক, উপস্থাপক এবং একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। নিজ পরিচয়ের নানাগুণেই তিনি আজ দেশবরেণ্য ব্যক্তিত্ব। মনে রাখবার মতো আলোকিত মানুষ। প্রকাশিতব্য দৈনিক জাগরণের সম্পাদক ও প্রকাশক।

উদার মানবতাবাদী, বিদগ্ধ সাংবাদিক, সমাজ বিশ্লে−ষক আবেদ খান ১৯৪৫ সালের ১৬ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন। প্রথম জীবনে তিনি হতে চেয়েছিলেন কবি। লিখেছেন গল্পও। তবে যাপন করছেন সাংবাদিকতার জীবন। পারিবারিকভাবে আলোকিত উত্তরাধিকার বহন করছেন আবেদ খান। সাতক্ষীরার খাঁ পরিবার শুধু বাংলাদেশেই নয়, এই উপমহাদেশের শিক্ষিত ও সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে বিশেষভাবে সুপরিচিত। সাতক্ষীরার রসুলপুর গ্রামেই আবেদ খানের জন্ম কিন্তু বেড়ে উঠেছেন ঢাকায়। অবিভক্ত ভারতের দৈনিক আজাদের সম্পাদক মওলানা আকরম খাঁ সম্পর্কে তাঁর নানা (মাতামহ) ছিলেন। তাঁর নানা ভারতের কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাতাদের একজন কমরেড আবদুর রাজ্জাক খান। আবেদ খানের পিতার নাম আব্দুল হাকিম খান এবং মায়ের নাম আজরা খানম। তাঁর স্ত্রী শিক্ষাবিদ, উপস্থাপক ডঃ সানজিদা আখতার এবং তাদের একমাত্র সন্তান ডঃ আসাদ করিম খান প্রিয়। আবেদ খান নানা সামাজিক আন্দোলনের সঙ্গে গভীরভাবে জড়িত ছিলেন, আছেনও। ‘সচেতন মানুষের ঘরে বসে থাকার কোন উপায় নেই’ বলেই বিশ্বাস করেন। ফলে তিনি আজও বিভিন্ন ভূমিকায় সক্রিয়।

স্বপ্নবান মানুষ আবেদ খান বাংলাদেশের গণমাধ্যমের তথা সংবাদপত্র ও সাংবাদিকতার ভুবনে এক গুরুত্বপূর্ণ ও জনপ্রিয় নাম। আজকের ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার জনপ্রিয় ‘টক শো’ ধারণাটিরও প্রথম প্রচলন করেন তিনি। শুধু সাংবাদিকতা নয়, সাংস্কৃতিক অঙ্গনেও রয়েছে তার সফল পদচারণা। ১৯৮৪, ১৯৮৬ এবং ১৯৯১ সালে মোট তিনবার বিটিভির ঈদ আনন্দ মেলার উপস্থাপনা করেছেন আবেদ খান ও ডঃ সানজিদা আখতার।

কিছু কিছু মানুষ আছেন যাঁরা স্বপ্ন দেখতে জানেন, স্বপ্ন দেখাতে জানেন। কিছু মানুষ নিজেদের স্বপ্ন সঞ্চারিত করতে পারেন অন্যদের ভেতর। আবেদ খান সেই বিরল প্রতিভার স্বাপ্নিক মানুষ, যাঁর চোখে স্বপ্ন দেখে আজকের তারুণ্য। আর আবেদ খান দেখেন এক সেক্যুলার ও সাম্যের বাংলাদেশের স্বপ্ন। মুক্তিযোদ্ধা আবেদ খানের সেই স্বপ্নযাত্রার সহযাত্রী আমরাও। কারণ, অসম্ভব অসাম্প্রদায়িক, যুক্তিবাদী মানুষ আবেদ খান। চেতনায় মুক্তিযুদ্ধ প্রবলভাবে উপস্থিত, মুক্তচিন্তারও ধারক-বাহক তিনি। নানা ভূমিকা পালনসহ এই বীর মুক্তিযোদ্ধা মুক্তিযুদ্ধকালীন ৮ নম্বর সেক্টরে সম্মুখ-যুদ্ধ করেছেন। তিনি আপাদমস্তক বাঙালী, জীবন যাপনে, মন-মননে, বাঙালিত্বের চিরায়ত মানবতাবাদী সংস্কৃতির সচেতন মানুষ। মানুষের প্রতি দারুণ আস্থাবান যেমন, তেমনি অন্যের প্রতি আপন দায়িত্ব পালনে সদাজাগ্রতও। প্রিয়ভাষী স্বজন আবেদ ভাইয়ের সুস্থ ও সুন্দর এবং কর্মময় আগামীর প্রত্যাশা করি। কামনা করি তাঁর আগামীর দিনগুলো কাটুক সবান্ধবে জীবনানন্দময়। - আবদুল্লাহ আল মোহন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com