বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ৮ কোম্পানির নির্মাণযজ্ঞ

প্রকাশের সময় : 2021-03-31 14:54:19 | প্রকাশক : Administration
বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ৮ কোম্পানির নির্মাণযজ্ঞ

আরিফুর রহমান: দেশে ধারাবাহিকভাবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জিত হচ্ছে। বাড়ছে মানুষের জীবনযাত্রার মান। বদল ঘটছে রুচির। এসব বিবেচনায় রেখেই এ দেশে রঙের বাজার ধরতে চাইছে ভারতীয় কোম্পানি এশিয়ান পেইন্টস। চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ২০ একর জায়গা জুড়ে তারা গড়ে তুলছে রঙের কারখানা।

এটা এশিয়ার সর্ববৃহৎ রঙের কারখানা। এর আগে গাজীপুরে প্রথম কারখানা স্থাপন করে তারা। সম্প্রতি সরেজমিনে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে দেখা যায়, এশিয়ান পেইন্টসের প্রকল্প এলাকার এখানে পাথর রাখা আছে তো ওখানে ইট, বালি, স্টিল ইত্যাদি স্তূপ করে রাখা। একাধিক খননযন্ত্রে অবিরাম কাজ চলছে। সব মিলিয়ে কাজ করছেন সাড়ে তিনশ শ্রমিক।

তৈরি হচ্ছে কাঁচামাল রাখার গোডাউন, প্রশাসনিক ভবন, পাম্পহাউস। গত বছর জানুয়ারিতে আনুষ্ঠানিকভাবে কারখানা নির্মাণের কাজ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত পূর্ত কাজের ৬০ শতাংশ শেষ হয়েছে।বাকি কাজ আগামী বছর জুনের মধ্যে শেষ করে ২০২১ সালের মধ্যেই রং উৎপাদন শুরু করা হবে। চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের বঙ্গবন্ধু শিল্পনগর দেশের সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক অঞ্চল হিসেবে বিবেচিত।

৩০ হাজার একর জায়গার ওপর প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে এই অর্থনৈতিক অঞ্চল। এখন পর্যন্ত দেশি-বিদেশি ৭৫টি প্রতিষ্ঠানকে ৮ হাজার একরের মতো জমি বুঝিয়ে দিয়েছে বেজা।প্রতিনিয়ত আরও দেশি-বিদেশি নতুন নতুন বিনিয়োগ প্রস্তাব আসছে। বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে এরই মধ্যে দুই হাজার কোটি ডলারের মতো বিনিয়োগ প্রস্তাব পাওয়া গেছে।

এই অর্থ বাংলাদেশের ১ লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকার মতো (প্রতি ডলার ৮৫ টাকা ধরে)। বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে দেশি-বিদেশি আটটি শিল্পকারখানার অবকাঠামো নির্মাণের কাজ জোরে-সোরে চলছে। তাদের বড় বড় ভবন নির্মাণের দৃশ্য চোখে পড়ার মতো। দেশের শীর্ষস্থানীয় বসুন্ধরা গ্রুপ বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ৫০০ একর জমি পেয়েছে। তাদের প্রকল্প এলাকায় ১০ তলাবিশিষ্ট ডরমিটরি ভবনের দোতলার ছাদ নির্মাণের কাজ শেষ।

এটিকে বসুন্ধরা গ্রুপ পাঁচ তারকা হোটেল হিসেবে তৈরি করছে। বসুন্ধরা কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রি ও বসুন্ধরা মাল্টি স্টিল মিলস নির্মাণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ২০ একর জায়গা পেয়েছে মডার্ন সিনটেক্স। তাদের কারখানা নির্মাণের কাজ অর্ধেক শেষ। নির্মাণকাজ শেষ করে আগামী বছরেই উৎপাদনে যেতে চান তারা।

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে বর্তমানে যে আটটি শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কারখানার নির্মাণকাজ দৃশ্যমান, তার মধ্যে আরও রয়েছে আরমান হক ডেনিম, নিপ্পন ও ম্যাকডোনাল্ড স্টিল ইন্ডাস্ট্রি, বাংলাদেশ অটো ইন্ডাস্ট্রি ও ১৫০ কেভি পাওয়ার প্ল্যান্ট পাওয়ার জেন। বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাকসহ, জাহাজ নির্মাণ, ইস্পাত, অটোমোবাইল, বস্ত্র, স্টিলসহ বিভিন্ন ধরনের কারখানা হবে।

বিনিয়োগকারীদের জন্য বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানির ব্যবস্থাসহ রাস্তাঘাট নির্মাণের কাজও শেষ করেছে বেজা। সেখানে বিজিএমইএর অনুকূলে বেজা ৫০০ একর জমি বরাদ্দ দেয়। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে চুক্তিও হয়। বিজিএমইএকে দেওয়া ৫০০ একর জমির মধ্যে ৩২১ একরে ৬৩টি প্লট করা হয়েছে।

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com