জোকস্

প্রকাশের সময় : 2021-07-19 10:11:50 | প্রকাশক : Administration
জোকস্

জোকস্

সংগ্রহে: ফেরদৌস আলম

 

দুটো কানই গুলি লেগে উড়ে গেছে:

 

ক্রিস্টিনা তার দুষ্টু, চঞ্চল ছোট মেয়েকে বলছেন

ক্রিস্টিনা: অ্যাঞ্জেল, এখন আমাদের বাড়িতে তোমার বাপির এক বন্ধু আসবেন, তার নাম মেজর ক্রিস্টফার। আফগান যুদ্ধে ভদ্রলোকের দুটো কানই গুলি লেগে উড়ে গেছে। তাই তাকে দেখে যেন জিজ্ঞেস কর না, ‘আঙ্কেল, আপনার কান দুটোর কি হলো?’ তাহলে তিনি কিন্তু ভীষণ রেগে যাবেন।

বলতে বলতে মেজর ক্রিস্টফার কলিং বেল বাজিয়ে ঘরে ঢুকলেন। মিসেস ক্রিস্টিনা যখন তাকে আপ্যায়ন করে বসাচ্ছেন; তখন অ্যাঞ্জেল তার মাকে বলল, ‘মামি, তুমি বললে আঙ্কেলের দুটো কানই কাটা, কিন্তু একটা কানের যে আধখানা থেকে গেছে। তাতে আঙ্কেল রেগে যাবেন না তো?’

 

খালি পেটে কয়টি আম খাওয়া যায়:

 

হাবু: বল, খালি পেটে তুই কয়টা আম খেতে পারবি?

জাবু: পাঁচটা।

হাবু: উঁহু, খালি পেটে তুই একটা আমই খেতে পারবি। কারণ একটা আম খাওয়ার পর তোর পেট আর খালি থাকবে না।

পরদিন বিকেলে ফারিয়ার সঙ্গে দেখা হলো জাবুর

জাবু: বল তো, খালি পেটে তুই কয়টা আম খেতে পারবি?

ফারিয়া: সাতটা।

জাবু: ধুর, পাঁচটা বললে একটা মজার কৌতুক হতো!

 

অতিথি আপ্যায়নের জন্য ট্যাক্সি:

বাড়িতে অতিথি এসেছেন। মা বল্টুকে ডেকে বললেন, ‘বাবা বল্টু, জলদি অতিথিদের জন্য বাইরে থেকে একটা কিছু নিয়ে আয় তো।’

দৌঁড়ে ঘর থেকে বেরিয়ে গেল বল্টু। কিছুক্ষণ পর ফিরল খালি হাতে।

মা: কি হলো? কি আনলি ওনাদের জন্য?

বল্টু: ট্যাক্সি! ওনারা যেন চটজলদি বাড়ি ফিরতে পারেন!

 

কফিতে পেট্রোলের গন্ধ কেন:

 

এক লোক দোকানে গেছেন চা খেতে। চায়ে চুমুক দিতেই তিনি বললেন-

লোক: এহ্ হে, কী দিছেন এইটা? এইটার মধ্যে তো পেট্রোলের গন্ধ!

দোকানদার: তাইলে এইটা চা না, কফি দিছি।

লোক: মানে?

দোকানদার: কারণ আমাদের কফিতে লোকে পেট্রোলের গন্ধ পায়!

 

সূর্য দেখতে হাতে হারিকেন:    

 

খুব ভোরে দবির সাহেব তার চাকরকে ডেকে তুলে বললেন-

দবির: এই দেখ তো সূর্য উঠেছে কি-না?

চাকর: একটু সবুর করুন, স্যার। হারিকেনটা জ্বালিয়ে নিয়ে আসি।

 

নিঃশ্বাস নিতে ভুলে যাওয়ায় মৃত্যু:

 

বাড়ির মালিক হঠাৎ মারা গেলেন। চাকর হাউমাউ করে কাঁদছে। প্রতিবেশীরা এসে জিজ্ঞেস করলেন-

প্রতিবেশী: কি হয়েছিল তোমার মালিকের?

চাকর: ভারি ভুলোমনা মানুষ ছিলেন তিনি। বোধ হয় গত রাতে নিঃশ্বাস নিতে ভুলে গেছিলেন।

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com