ডিসেম্বরে চালু হচ্ছে তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু

প্রকাশের সময় : 2021-08-25 15:31:39 | প্রকাশক : Administration
ডিসেম্বরে চালু হচ্ছে তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু

মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল: শীতলক্ষ্যা-৩ সেতু সড়ক যোগাযোগে যুগান্তকারী সাফল্য এনে দিতে যাচ্ছে। এই সেতু ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের সঙ্গে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দূরত্ব কমিয়ে দিচ্ছে ৯ কিলোমিটার। শুধু দূরত্বই কমছে না এর ফলে ঢাকা ও নারাছুগঞ্জের কয়েক পয়েন্টের যানজটও হ্রাস পাবে। চলতি বছরের ডিসেম্বরে সেতুটি যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে।

সেতুটি যেন দুই মহাসড়কের বাইপাস। সেতুটি নারাছুগঞ্জের চরসৈয়দপুর প্রান্ত থেকে বন্দর প্রান্ত পর্যন্ত সেতুবন্ধন তৈরি করছে। ৩৪০ মিটার মূল সেতু এবং ভায়াডাক্টসহ সেতুটি ১ দশমিক ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ। চারটি খুঁটিকে ভিত করে দাঁড়িয়েছে মূল সেতু। এক খুঁটি থেকে অপর খুঁটির দূরত্ব ২০ মিটার। দুই প্রান্তের ভয়াডাক্টের খুঁটির সংখ্যা ৩৪।

মূল সেতু সরাসরি কংক্রিটের ঢালাই করা হলেও ভয়াডাক্ট তথা সংযোগ সেতুতে বসানো হচ্ছে কংক্রিটের স্প্যান। প্রকল্প এলাকায় তৈরি করে ক্রেনে করে বসিয়ে দেয়া হচ্ছে স্প্যান। দুই খুঁটির মাঝখানে ৮টি করে স্প্যান বসছে। প্রতিটি স্প্যানই একটি করে লেন। সেতুতে মোট ৩৩টি স্প্যান বসবে। ইতোমধ্যে ১৮টি স্প্যান বসে গেছে। এক একটা স্প্যানে ৮টি করে গার্ডার রয়েছে। সেতুটিতে ২৬৪টি গার্ডার বসবে। ইতোমধ্যে ১৭২টি গার্ডার স্থাপন হয়ে গেছে।

সেতুটির প্রকল্প ব্যয় এখন প্রায় সাড়ে ৬শ’ কোটি টাকা। প্রথমে প্রায় ৪৪৫ কোটি টাকা থাকলেও পরবর্তীতে বৃদ্ধি করা হয়। সেতুটি চালু হলে মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপুর হয়ে শ্রীনগরের ছনবাড়ি পয়েন্ট দিয়ে সুপার এক্সপ্রেসওয়ের সঙ্গে যুক্ত হয়ে যাবে পদ্মা সেতু। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহসড়কের নারাছুগঞ্জ মদনপুর থেকে মাওয়ায় পদ্মা সেতুর দূরত্ব ৪৩ কিলোমিটার।

আর মদনপুর থেকে যাত্রাবাড়ী পদ্মা সেতুর দূরত্ব আছে ৫২ কিলোমিটার। শীতলক্ষ্যা-৩ সেতু থেকে মদনপুরের দূরত্ব ১২ কিলোমিটার। করোনার মধ্যেও অনুমতি নিয়ে ব্রিজের কাজ এগিয়ে চলছে। দেশী-বিদেশী দেড় শতাধিক কর্মী স্বাস্থ্যবিধি মেনে এখানে কাজ করছেন। আগামী আগস্টের মধ্যেই সব ঢালাই কাজ শেষ হয়ে যাবে। ডিসেম্বরের আগে তারা কাজ শেষ করার চেষ্টা করছেন। আট লেনের সেতুর সার্বিক অগ্রগতি ৮৩ শতাংশ।

এই সেতু এই অঞ্চলের দুই মহাসড়কের সহজ সংযুক্তি ছাড়াও পুরো অঞ্চলের ভূমিকা রাখবে। আর এই সেতু ঘিরে মুক্তারপুর থেকে শ্রীনগরের ছনবাড়ি পর্যন্ত রাস্তা প্রশস্তকরণ প্রকল্প শুরু হতে যাচ্ছে। তাই এই সেতুটি ঘিরে বদলে যাবে মুন্সীগঞ্জ। এছাড়া সেতুটি নির্মাণাধীন পঞ্চবটি-মুক্তারপুর উড়াল সেতুর সঙ্গেও যুক্ত হবে। শীতলক্ষ্যা-৩ সেতু ব্যবহার করেও মুন্সীগঞ্জবাসীর ঢাকা যাওয়ার সুযোগ থাকবে। সেতুটির ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চীনা সিনো হাইড্রো কর্পোরেশন লিমিটেড। - জনকন্ঠ

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com