সাগরের তীরে বিমান

প্রকাশের সময় : 2021-12-16 08:40:47 | প্রকাশক : Administration
সাগরের তীরে বিমান

 

দেখতে অনেকটা বিমানের মতো। কিন্তু সাধারণ বিমান বললে একটু কম বলা হয়। বিমানের চেয়েও কয়েক গুণ বেশি ক্ষমতাশালী। এর নাম এক্রানোপ্ল্যান। এটি রাশিয়ার নৌ বাহিনীর এয়ারক্রাফট।

এক্রানোপ্ল্যান একটি রাশিয়ান শব্দ। এর অর্থ ‘গ্রাউন্ড এফেক্ট ভেহিকল’। ক্যাসপিয়ান সাগরের তীরে এই বিশাল বিমান দেখে যে কেউ চমকে যেতে পারেন। এর আর এক নাম ‘ক্যাসপিয়ান সি মনস্টার’। এক সময় ক্যাসপিয়ান সাগরের বুক থেকেই উড়ত এই ‘দৈত্যাকার’ বিমান। সে কারণেই এমন নামকরণ।

১৯৮৭ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন এই এক্রানোপ্ল্যান তৈরি করেছিল। ১৯৮৭ সাল থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত সোভিয়েত এবং রাশিয়ার নৌসেনা এই বিমান ব্যবহার করত। পানিতে ভেসে থাকা অবস্থাতেও খুব সহজেই উড়তে পারত এটি। কিন্তু খুব বেশি দিন নৌসেনা এই বিমান ব্যবহার করেনি।

তিন বছর পর ১৯৯০ সালে অবসর নেয় এটি। তারপর থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ক্যাসপিয়ানের উপকূলে পরিত্যক্ত হয়েই পড়েছিল এই লুন ক্লাস এক্রানোপ্ল্যান। নির্জন সমুদ্র তীরে এমন একটা এয়ারক্রাফট দেখে যে কেউ চমকে যেতেন।

এই লুন ক্লাস এক্রানোপ্ল্যানের দৈর্ঘ্য ২৪০ ফুট। উচ্চতায় ৬৫ ফুট এবং দু’পাশে দুই ডানা-সহ এর প্রস্থ ১৪৪ ফুট। সে সময়ে সোভিয়েত ইউনিয়নের জন্য এই শ্রেণির একটিমাত্র ভেহিকল তৈরি করা হয়েছিল।

রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে এবং সমুদ্র উপকূলে দীর্ঘ সময় পড়ে থাকার দরুন এর অনেক অংশই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ঐতিহাসিক এই এয়ারক্রাফটকে রক্ষা করার জন্য সম্প্রতি অভিনব উপায় নেওয়া হয়েছে। এটিকে সমুদ্র উপকূল থেকে সরিয়ে নতুন একটি স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। দারবেন্ট শহরের কাছে পর্যটকদের জন্য একটি পার্কে রাখার সিদ্ধান্ত হয়। পার্কটি এখনও সাধারণের জন্য খোলা হয়নি। - সূত্র: অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com