বান্দার দোষত্রুটি গোপন রাখার ফজিলত

প্রকাশের সময় : 2022-02-23 12:28:32 | প্রকাশক : Administration
বান্দার দোষত্রুটি গোপন রাখার ফজিলত

ফয়েজ মোঃ জহির: আপনি যদি কোন অপরাধ করেও পার পেয়ে যান, বুঝবেন এখানে আপনার কোন ক্রেডিট নেই। মহান আল্লাহ তায়ালা আপনাকে সবার সামনে অপদস্থ করার পরিবর্তে, আপনাকে আরেকটা সুযোগ দিয়েছেন যাতে ওই অপরাধটি আপনি আর না করেন।

তাই কোন পাপ করে ফেললে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চান। ওই অপরাধের পুনরাবৃত্তি দয়া করে করবেন না। অনেকে বুক ফুলিয়ে পাপের কথা সবাইকে বলে বেড়ায়। এটা অত্যন্ত গর্হিত কাজ।

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি "আমার উম্মতের সবাইকে ক্ষমা করে দেয়া হবে; তবে ওই সব লোককে ক্ষমা করা হবে না, যারা পাপ করার পর তা অন্যের কাছে প্রকাশ করে দেয়।"

তেমনি আপনিও যদি অন্য কারো কোন গোপন পাপের ব্যাপারে জেনে থাকেন, দয়া করে প্রকাশ করবেন না।

এ ব্যাপারেও আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত আরেকটা চমৎকার হাদীস রয়েছে। "রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘যে বান্দা অন্য বান্দার দোষ-ত্রুটি এ পার্থিব জীবনে গোপন রাখবে, আল্লাহতায়ালা কিয়ামতের দিন তার দোষ-ত্রুটি গোপন রাখবেন।" (মুসলিম)।

আমাদের সবার উচিত আল্লাহতায়ালা আমাদের বিভিন্ন সময় তওবা করার যে সুযোগ দেন সেটার সদ্ব্যবহার করা এবং অন্যদেরকেও যে সুযোগ দেন সেটার প্রতি সম্মানশীল হওয়া।

আপনি গরীব, ধনী, ফকির, মধ্যবিত্ত যাই হোন না কেন আপনাকে এটা বিশ্বাস করতেই হবে যে একদিন আপনি মারা যাবেন এবং আপনার সব কাজের হিসাব নেয়া হবে। অনু পরিমাণ সত কাজ বা অনু পরিমাণ খারাপ কাজ কোনটাই মহান আল্লাহর কাছে লুকানো যাবে না। সেটা প্রকাশ পাবেই।

আপনি বিপদে থাকুন, ভালো অবস্থায় থাকুন, অক্ষম হোন বা সক্ষম। আল্লাহর ঈবাদত করা আপনার পরম দায়িত্ব। এথেকে পরিত্রানের কোন সুযোগ আমাদেরকে দেয়া হয়নি।

আমরা এই মুহুর্তে যে দুর্যোগের ভেতরে আছি, এর মধ্যেও আমাদেরকে আল্লাহর ঈবাদত বেশি বেশি করে করতে হবে, তার কাছে সাহায্য চাইতে হবে, ধৈর্য্য ধারণ করতে হবে।

একজন মুমিন এক্ষেত্রে আমাদের জন্য খুব ভালো উদাহরণ হতে পারেন। মুমিন হচ্ছেন এমন একজন ব্যক্তি, যিনি যখন বিপদে পড়েন তখন তিনি কোনভাবেই হতাশ হয়ে যান না। বরং ধৈর্য্যধারণ করে, আল্লাহর কাছে বিপদ থেকে মুক্তির জন্য সাহায্য চান এবং নিজের অবস্থার পরিবর্তনের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা চালান। পক্ষান্তরে একজন মুমিন যখন ভালো অবস্থায় থাকেন, তখন তিনি আল্লাহর কাছে তার রহমতের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন, ধন্যবাদ জানান। আল্লাহ আমাদের একজন সত্যিকারের মুমিন হবার শক্তি দিন। জীবনের যে অবস্থাতেই আমরা থাকি না কেন, ভালো কিংবা মন্দ সব সময় যেন আমরা কৃতজ্ঞ থাকতে পারি। হতাশার কালো অন্ধকার যেন আমাদের স্পর্শ করতে না পারে। আমিন।

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com