মূর্তি কাঁদে, চোখ থেকে ঝরে রক্ত!

প্রকাশের সময় : 2022-06-08 16:26:14 | প্রকাশক : Administration
মূর্তি কাঁদে, চোখ থেকে ঝরে রক্ত!

আর্জেন্টিনার উত্তর-পশ্চিমে মেটান শহরের ফ্রিয়াস পরিবারের বাড়িতে রয়েছে আশ্চর্য এক মূর্তি। সাধারণত মূর্তির চোখ থেকে কখনো চোখের পানি বের হয় না। অথচ ভার্জিন অব দ্য মিস্টিক রোজ নামে এক আশ্চর্য মূর্তির চোখ থেকে প্রায়ই ঝরতে দেখা যায় অশ্রুবিন্দু। তবে তা সাধারণ অশ্রুবিন্দু নয়, কান্নার সময় মূর্তির চোখ থেকে রীতিমতো বের হচ্ছে রক্তের স্রোতধারা।

সর্বপ্রথম ২০১৭ সালে এই বিশেষত্বের কারণে মূর্তিটি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে আসে। খবরের শিরোনামও হয় অনেকবার। এই রহস্যময় মূর্তিটির মালিক ফ্রিয়াস পরিবারের প্রধান রোসানা মেন্ডোজা ফ্রিয়াস। তিনি যখন এই অদ্ভূত ঘটনাটি দেখেন তখন তিনি তা ভিডিও করতে শুরু করেন। নেটদুনিয়ায় শেয়ার করার পর খুব দ্রুতই ভিডিওটি দেশ-দেশান্তরে ভাইরাল হতে শুরু করে।

ফ্রিয়াস পরিবারের রহস্যময় মূর্তিকে ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে প্রথম রক্ত কান্না করতে দেখা যায়। এরপর থেকে প্রায়ই এই মূর্তিকে কাঁদতে দেখা গেছে। রোসানার দাবি, তার মায়ের শারীরিক সুস্থতা কামনা করে ওই মূর্তির কাছে প্রার্থনা করার পর মূর্তিকে কাঁদতে দেখা গিয়েছিল। রক্ত কান্নার কারণ স্পষ্ট না হওয়ায় অনেকেই মনে করেন মানুষকে চমক দিতে এই মূর্তিকে বিশেষভাবে বানানো হয়েছে।

দর্শনার্থীদের ভাষ্য, এই মূর্তির রয়েছে অলৌকিক ক্ষমতাও। একবার এই মূর্তি দেখতে আসেন এক নারী, যার শরীরে ছিল তিন ইঞ্চি সমান টিউমার। কিন্তু এই মূর্তি দর্শন করার সঙ্গে সঙ্গেই সেই নারীর দৃশ্যমান টিউমার অদৃশ্য হয়ে যায়। বিস্ময়কর এই পুরো ঘটনা প্রত্যক্ষ করার পর দর্শনার্থীদের মাঝে এই মূর্তিটি নিয়ে আরও আগ্রহ বেড়ে যায়। তাই মূর্তির মালিক রোসানা মানুষের দর্শনের সুবিধার্থে সবসময়ই বাড়ির দরজা খোলা রাখেন। - সূত্র: অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com