মরা মশায় চোর শনাক্ত করলো পুলিশ

প্রকাশের সময় : 2022-08-03 16:07:18 | প্রকাশক : Administration
মরা মশায় চোর শনাক্ত করলো পুলিশ

জামা কাপড় নয়, অপরাধীর ফেলে যাওয়া বস্তু বা হাতের ছাপও নয়! অপরাধীকে শনাক্ত করতে সাহায্য করেছে একটি মরা মশা! অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে চীনে। মরা মশার সূত্র ধরেই অপরাধীকে খুঁজে বের করেছে দেশটির পুলিশ।

চীনের সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের ফুজিয়ান প্রদেশের ফুঝো শহরে এমনই এক বিস্ময়কর ঘটনা ঘটেছে। এখানে তদন্তকারীরা একটি মশার রক্তের মাধ্যমে অপরাধীকে চিহ্নিত করে তাকে অবশেষে গ্রেফতার করেছে।

চুরির ঘটনা আবাসিক এলাকার একটি অ্যাপার্টমেন্টে ঘটেছিল। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে তদন্ত করতে যায়। পুলিশ অনুমান করে যে, যেহেতু বাড়িটি অনেকক্ষণ তালাবন্ধ ছিল, তাই চোর নিশ্চয়ই বারান্দা দিয়ে ঘরের ভেতরে ঢুকেছে। বাড়ির রান্নাঘরে সেদ্ধ ডিম, অবশিষ্ট নুডলস, ছেঁড়া কম্বল ও বালিশও পাওয়া যায়।

তখন পুলিশ বুঝতে পারে, চোর অবশ্যই বাড়িতে কিছুটা সময় কাটিয়েছে এবং তারপরে জিনিসপত্র চুরি করে পালিয়ে গেছে। তদন্ত চলাকালীন পুলিশ দেয়ালে আটকে থাকা একটি মৃত মশা দেখতে পায়। মশার শরীর থেকে রক্তের ফোঁটাও বেরিয়ে দেয়ালে আটকে ছিল।

অডিটি সেন্ট্রাল ওয়েবসাইট অনুযায়ী, পুলিশ সেই রক্ত দিয়ে ডিএনএ পরীক্ষা করে। তদন্তে জানা যায়, ডিএনএ চা নামের একজন অপরাধীর ডিএনএর সঙ্গে মিলে যাচ্ছে, যার এর আগেও অপরাধের রেকর্ড ছিল। ১৯ দিন পর ওই অপরাধীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়। সেখানে তিনি স্বীকার করেন যে, ওই বাড়ির পাশাপাশি তিনি ইতোমধ্যেই আরও ৩ টি বাড়িতে চুরি করেছেন। আদালতে এখন বিচার চলছে তার। - সূত্র: অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com