লিচুগাছে ঝুলছে আম, ব্যাপক চাঞ্চল্য

প্রকাশের সময় : 2022-09-28 14:20:00 | প্রকাশক : Administration
লিচুগাছে ঝুলছে আম, ব্যাপক চাঞ্চল্য

আমগাছে আম ধরে, জামগাছে জাম। সে নিয়ম অনুযায়ী লিচুগাছে লিচু ছাড়া অন্য ফল ধরার কথা নয়। কিন্তু এ নিয়ম ভেঙে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সিঙ্গিয়া কলোনিপাড়া গ্রামের আবদুর রহমানের একটি গাছে লিচুর থোকায় আমও ঝুলতে দেখা গেছে। এ নিয়ে এলাকায় এখন চলছে ব্যাপক আলোচনা।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে সেটি দেখতে দূর থেকে মানুষজন এসে ভিড় করছে। ঘটনাটি সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের ছোট বালিয়া মুটকি বাজার এলাকায়।

লিচুগাছটির মালিক আব্দুর রহমান জানান, প্রায় ৫ বছর আগে তার জামাতা তাকে চারটি লিচু গাছের চারা এনে দেন। এরপর তিনি ওই চারাগুলো বাড়ির চারপাশে রোপন করেন। নিয়মিত পরিচর্যায় ৩ বছর ধরে লিচুগাছগুলোতে লিচু ধরতে শুরু করে। এবারও গাছগুলোতে মুকুলে ভরে যায়। কিছুদিন পর লিচুর গুটির আকার বড় হতে শুরু করে।

তিনি বলেন, সকালে তার নাতি হৃদয় ইসলাম এসে আব্দুর রহমানকে জানায়, চারটি লিচু গাছের মধ্যে একটি লিচুগাছে ‘আম’ ধরেছে। নাতির কথা প্রথমে তার বিশ্বাস হয়নি। পরে লিচুগাছে গিয়ে দেখেন ঘটনা সত্য। লিচুগাছের এক থোকার এক পাশে একটি আম ধরেছে।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে দূর থেকে মানুষজন এসে ভিড় করতে শুরু করে আব্দুর রহমানের বাড়িতে। এটা দেখতে যারা ভিড় করেছেন, তাদের প্রশ্নের উত্তর দিতে দিতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন আব্দুর রহমানসহ বাড়ির লোকজন। আব্দুর রহমানের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, পুরোগাছটি লিচুর গুটিতে ভরা। গাছের একপাশে একটি থোকায় ১৭টি লিচু রয়েছে, এর মধ্যে ওই লিচুগুলোর সঙ্গে ‘সবুজ আম ঝুলছে’। লিচুর ডগা লম্বা হলেও আমটির বোঁটা অনেকটা ডালঘেঁষা।

দিনাজপুর সরকারি কলেজের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের এমএসসির শিক্ষার্থী মোঃ মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, আম ও লিচু এই দুটি আলাদা পরিবারের। আম অহধপধৎফরধপবধব ও আর লিচু ঝবঢ়রহফধপবধব পরিবারের ফল গাছ। একই পরিবারভুক্ত উদ্ভিদের ক্ষেত্রে গ্রাফটিং সম্ভব। আবার লিচুগাছে আম ধরার ঘটনাটিও বিজ্ঞানসম্মত নয়।

লিচু ও আমের ক্ষেত্রে এটা অবিশ্বাস্য। লিচু ও আমের টিস্যু সিস্টেম এক না হওয়ায় আম ও লিচুর গ্রাফটিংও সম্ভব নয়। লিচুর সঙ্গে আমগাছের ডাল জোড়া লেগেছে, এমন উদাহরণ নেই। উদ্ভিদতত্ত্বে এর কোনো ব্যাখ্যা নেই।

লিচুগাছে আম ধরার কথাটি শুনে সরেজমিনে গিয়েছিলেন ঠাকুরগাঁও জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের দুজন কর্মকর্তা। - সূত্র: অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com