বিরক্তিকর কাশি বন্ধ করুন মাত্র ২ মিনিটে

প্রকাশের সময় : 2023-02-15 15:41:41 | প্রকাশক : Administration
বিরক্তিকর কাশি বন্ধ করুন মাত্র ২ মিনিটে

জীবনে কখনো কাশি হয়নি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া আকাশের চাঁদ হাতে ধরার মত। জীবনে এই বিরক্তিকর অভিজ্ঞতা সবার জীবনেই আছে। মাঝে মাঝে এমন অবস্থা হয় যেন কাশি শুরু হলে বন্ধ হতে চায় না। ঠিক যেমন যক্ষার মত। মূলত শ্বাসনালীর প্রদাহের এবং ফুসফুসে জীবাণুর প্রবেশ ঘটলেই কাশি হয়ে থাকে। ছোট বড় সবার জন্যে এটি প্রযোজ্য। এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ সময় কাশি হয় যা আপনাকে অনেক বড় বিপদে ফেলার মত অবস্থা। অনেক কাশির ঔষধ খেয়েও কোন  কাজ হয় না। এমন অবস্থায় খুব সহজেই পারেন কিছু প্রাকতিক নিয়ম মেনে ভালো থাকতে।

১। অবস্থার পরিবর্তন করুন: খুব বেশি কাশি শুরু হলে আপনি সাথে সাথে অবস্থার পরিবর্তন করুন । শুয়ে থাকলে বসে পড়ুন । আর বসে থাকলে দাঁড়িয়ে যান । এতে খুব ভালো ফল পাবেন আপনি ।

২। পানি পান করুন: অতিরিক্ত কাশির সময় পানি খেলে আপনার কাশি বন্ধ হয়ে যাবে ।

৩। লবঙ্গ (লং) মুখে রাখুন: লং এর একটি চমৎকার ক্ষমতা আছে এ বিষয়ে যা আপনার কন্ঠ      নালীকে পরিষ্কার করে কাশি থেকে মুক্তি দিতে পারে তাৎক্ষণিক। মুখে রাখার ফলে এক প্রকার পদার্থ নিঃসরণ করে আপনার শান্তি নিশ্চিত করে।

৪। আদা: বহুগুণে গুণান্বিত আদা এই রকম অবস্থাতে আপনাকে শান্তি দিতে পারে। এটা পরীক্ষিত পদ্ধতি যা অত্যন্ত ফলদায়ক।

৫। বুক ফুলিয়ে দম নেয়া: কাশি থামানোর জন্যে নিজস্ব ব্যবস্থা। বুক ফুলিয়ে দম নিয়ে আস্তে আস্তে দম ছাড়ুন। এতে দেহের প্রতিটি কোষে পর্যাপ্ত অক্সিজেন সরবরাহ হয়, ফলে প্রতিটি কোষ ভালো ভাবে কাজ করে। এসব ব্যবস্থা গ্রহণ করে খুব সহজে অল্প সময়ে বিরক্তিকর কাশি থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন। - সূত্র: অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৮৯৬০৫৭৯৯৯
Email: simecnews@gmail.com