উন্নয়ন তুলে ধরে বিজয় অব্যাহত রাখতে হবে

প্রকাশের সময় : 2021-10-10 10:06:47 | প্রকাশক : Administration
উন্নয়ন তুলে ধরে বিজয় অব্যাহত রাখতে হবে

উন্নয়ন তুলে ধরে বিজয় অব্যাহত রাখতে হবে

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা দলের বৃহত্তর স্বার্থে স্থানীয় সরকারসহ অন্যান্য নির্বাচনে দল যাকে মনোনয়ন দিয়েছে, তার পক্ষেই অর্থাৎ নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে তৃণমূল নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, সরকারের সকল উন্নয়নমূলক কর্মকা- জনগণের সামনে তুলে ধরে নির্বাচনে দলের বিজয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। ইউনিয়ন পরিষদসহ সকল নির্বাচনে দল যাকে যোগ্য মনে করে মনোনয়ন দেবে, তাঁর পক্ষেই দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

টানা তৃতীয় দিনের মতো শনিবার গণভবনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের মুলতবি বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বিকেল চারটায় তাঁর সরকারী বাসভবন গণভবনে মনোনয়ন বোর্ডের মুলতবি সভা শুরু হয়ে তা রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত চলার পর বৈঠকটি পুনরায় আজ রবিবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত মুলতবি করা হয়।

বৈঠকে বোর্ডের সদস্য আমির হোসেন আমু, শেখ আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, বোর্ডের সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ, ড. মোঃ আবদুল রাজ্জাক, লে. কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। শনিবার রাতে দলের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়য়া স্বাক্ষরিত খুলনা ও বরিশাল বিভাগ এবং ঢাকা বিভাগের পাঁচটি জেলার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দলের একক প্রার্থিতার তালিকা প্রেস বিজ্ঞপ্তির প্রকাশ করেন। গত বৃহস্পতিবার মনোনয়ন বোর্ডের প্রথম দিনের বৈঠক শেষে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়।

দ্বিতীয় ধাপের ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদের দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করতেই গত বৃহস্পতিবার থেকে মনোনয়ন বোর্ডের এই সিরিজ বৈঠক করছে আওয়ামী লীগ। এখন চলছে বিভাগওয়ারী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করার কাজ। শনিবার তৃতীয় দিনের মতো বৈঠকে বসে বরিশাল ও খুলনা বিভাগসহ ঢাকা বিভাগের পাঁচটি জেলার প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করেছে ক্ষমতাসীন দলটি। এ নিয়ে তিনদিনে চারটি বিভাগের সম্পূর্ণ এবং একটি বিভাগের আংশিক প্রার্থী মনোনয়নের কাজ শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রথম দিনে চূড়ান্ত হয়েছিল রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের প্রার্থী তালিকা।

এবার ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে প্রথম থেকেই শক্ত অবস্থান নিয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। সততা, যোগ্যতা, জনপ্রিয়তা এই তিনটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে যাচাই-বাছাই করেই দলের একক প্রার্থিতা চূড়ান্ত করছে আওয়ামী লীগ। সেক্ষেত্রে কপাল পুড়ছে অনিয়ম-দুর্নীতি, অপকর্ম কিংবা অতীতে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া মনোনয়নপ্রত্যাশীদের। শনিবার রাত অবধি তৃতীয় দিনের বৈঠকেও একজন বিদ্রোহী প্রার্থীকেও ইউপি চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেয়নি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড। তবে যেসব ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ নেই, তাঁরা পুনরায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন।

বৈঠকে উপস্থিত আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের একাধিক সদস্যের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দু’তিন দিনের মধ্যে আট বিভাগের ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদের দলের একক প্রার্থী চূড়ান্ত করা খুব কঠিন কাজ। কারণ এবার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের অনেক কিছুই যাচাই-বাছাই করেই প্রার্থিতা চূড়ান্ত করা হচ্ছে। গত তিন দিনের প্রতিটি বৈঠকেই প্রধানমন্ত্রী ও দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা দলের সিদ্ধান্ত মেনে দল মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান যেমন জানিয়েছেন, তেমনি দলের সিদ্ধান্ত কেউ অমান্য করলে আগামীতে তাদের দল ও মনোনয়ন কোনকিছুতেই রাখা হবে না- সেই কথাটিও কঠোরভাবেই উচ্চারণ করেছেন।

তিন বিভাগের মনোনয়ন পেলেন যাঁরা ॥ শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে খুলনা ও বরিশাল বিভাগ এবং ঢাকা বিভাগের পাঁচটি জেলা (ঢাকা, গাজীপুর, মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জ জেলা) ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দলের একক প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে।

খুলনা বিভাগ ॥ মেহেরপুর জেলার মুজিবনগরের দারিয়াপুর ইউপিতে মোঃ মোস্তাকিম, মোনাখালী মোঃ রফিকুল ইসলাম গাইন, বাগোয়ান মোঃ কুতুব উদ্দীন, মহাজনপুর মোঃ আমাম হোসেন, গাংনীর বামুন্দিতে মোঃ ওবায়দুর রহমান, কাথুলী মোঃ গোলজার হোসেন, মটমুড়া মোঃ আবুল হাশেম বিশ^াস, তেঁতুলবাড়ীয়া মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, সাহারবাটি মোহাঃ মশিউর রহমান, কুষ্টিয়া জেলার মিরপুরের আমলায় মোঃ একলিমুর রেজা, সদরপুর মোঃ রবিউল হক, বারুইপাড়া মোঃ শফিকুল ইসলাম, বহলবাড়ীয়া শহিদুল ইসলাম, তালবাড়ীয়া মোঃ তৌসিক আহম্মেদ, ছাতিয়ান মোঃ তাছের আলী ম-ল, কুর্শা মোঃ আব্দুল হান্নান, ফুলবাড়ীয়া মোঃ আতাহার আলী, মালিহাদ মোঃ আকরাম হোসেন, আমবাড়ীয়া মোঃ সাইফুদ্দিন মুকুল, পোড়াদহ মোছাঃ শারমিন আক্তার নাসরিন। ভেড়ামারার মোকারিমপুরে মোঃ আব্দুস সামাদ, জুনিয়াদহ মোঃ শওকত আলী, বাহাদুরপুর মোঃ সোহেল রানা, বাহিরচর মোছাঃ রওশন আরা বেগম, চাঁদগ্রাম মোঃ বুলবুল কবির, ধরমপুরে মোঃ শাহাবুল আলম লালু আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।

এছাড়া চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদার জুড়ানপুরে মোঃ সোহরাব হোসেন, কার্পাসডাঙ্গা মোঃ খলিলুর রহমান, কুড়ুলগাছি মোঃ কাফি উদ্দীন, দামুড়হুদা মোঃ হযরত আলী। জীবননগরের সীমান্ততে মোঃ ইশাবুল ইসলাম (মিল্টন)। ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুরের এস.বি.কে ইউপিতে মোছাঃ শামীমা সুলতানা, ফতেপুর মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, পান্তাপাড়া মোঃ ইসমাইল হোসেন, স্বরূপপুর মোঃ মিজানুর রহমান, শ্যামকুড় মোঃ আমানুল্লাহ হক, নেপা মোঃ সামছুল আলম, কাজিরবেড় বি এম সেলিম রেজা, বাঁশবাড়িয়া মোহাঃ নওশের আলী মল্লিক, যাদবপুর মোঃ সালাহ উদ্দীন, নাটিমা মোঃ আবুল কাশেম, মান্দারবাড়ীয়া মোঃ আমিনুর রহমান, আজমপুর মোঃ শাহাজাহান আলী আওয়ামী লীগের প্রার্থী।

যশোর জেলার ঝিকরগাছার গঙ্গানন্দপুরে মোঃ আমিনুর রহমান, মাগুরা মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, শিমুলিয়া মোঃ মতিয়ার রহমান সর্দার, গদখালী মোঃ আশরাফ উদ্দীন, পানিসারা মোঃ নওশের আলী, ঝিকরগাছা আমির হোসেন, নাভারণ মোঃ শাহাজাহান আলী, নির্বাসখোলা মোঃ খায়রুজ্জামান, হাজিরবাগ মোঃ আতাউর রহমান, শংকরপুর গোবিন্দ চন্দ্র চ্যাটার্জী, বাঁকড়া মোঃ নিছার। চৌগাছার ফুলসারায় মোঃ মেহেদী মাসুদ চৌধুরী, পাশাপোল মোঃ অবাইদুল ইসলাম, সিংহঝুলি মোঃ রেজাউর রহমান, ধুলিয়ানী এস এম আব্দুস সবুর, চৌগাছা মোঃ আবুল কাশেম,

জগদীশপুর মোঃ তবিবর রহমান খান, পাতিবিলা মোঃ তারিকুল ইসলাম, হাকিমপুর মোঃ মামুন কবির, স্বরূপদাহ মোঃ সানোয়ার হোসেন, নারায়ণপুর মোঃ শাহিনুর রহমান, সুখপুকুরিয়া মোঃ হবিবর রহমান আওয়ামী লীগের প্রার্থী।

মাগুরা জেলার মাগুরা সদরের হাজীপুরে মোঃ মোজাহারুল হক, আঠারখাদা সঞ্জীবন বিশ^াস, কছুন্দী মোঃ আবুল কাশেম মোল্লা, বগিয়া মীর রওনক হোসেন, হাজরাপুর মোঃ কবির হোসেন, রাঘবদাইড় মোঃ আশরাফুল আলম, মঘী হাচনা হেনা, জগদল সৈয়দ রফিকুল ইসলাম, চাউলিয়া মোঃ হাফিজার রহমান, শত্রুজিৎপুর নজিৎ কুমার বিশ^াস, বেরইল পলিতা খোন্দকার মহব্বত আলী, কুচিয়ামোড়া আবু হাসনাত মোঃ আলমগীর হোসেন, গোপালগ্রাম মোঃ নাসিরুল ইসলাম। নড়াইল জেলার নড়াইল সদরের মাইজপাড়ায় জসীম মোল্যা, হবখালী মোঃ টিপু সুলতান, চন্ডিবরপুর সৈয়দ তারিকুল ইসলাম, আউড়িয়া এস, এম, পলাশ, শাহাবাদ মোঃ আশরাফ খান (মাহমুদ), তুলারামপুর মোঃ বুলবুল আহমেদ, সেখহাটি গোলক বিশ^াস, কলোড়া আশিস কুমার বিশ^াস, সিংঙ্গাশোলপুর মোঃ সাইফুল ইসলাম, ভদ্রবিলা সৈয়দ আবিদুল ইসলাম, বাঁশগ্রাম মোঃ সিরাজুল ইসলাম, বিছালী মোঃ ইমারুল গাজী, মূলিয়া রবীন্দ্রনাথ অধিকারী, বাগেরহাট জেলার বাগেরহাট সদরের ষাট গুম্বজে শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, গোটাপাড়া শেখ সমশের আলী যাত্রাপুর বেগ এমদাদুল হক। মোল্লাহাটের গাংনীতে শিকদার উজির আলী, মুলঘর হিটলার গোলদার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।

খুলনা জেলার রূপসার নৈহাটিতে মোঃ কামাল হোসেন বুলবুল, আইচগাতী মোঃ আশরাফুজ্জামান বাবুল, শ্রীফলতলা মোঃ ইসহাক সরদার, টিএসবি জাহাঙ্গীর সেখ। ফুলতলা উপজেলার ফুলতলায় মোল্যা আলী আজম মোহন, জামিরা আবু হেনা মোস্তফা কামাল চৌধুরী, দামোদর শরীফ মোহাম্মদ ভূইয়া, আটরা গিলাতলা শেখ মনিরুল ইসলাম। ডুমুরিয়ার ধামালিয়ায় মোঃ রেজোয়ান মোল্যা, রঘুনাথপুর খান শাকুর উদ্দিন, রুদাঘরা মোস্তফা কামাল খোকন, খর্ণিয়া আফরোজা খানম, আটলিয়া এ বি এম শফিকুল ইসলাম, মাগুরাঘোনা মোঃ রফিকুল ইসলাম হেলাল, শোভনা সরদার আব্দুল গনি, শরাফপুর এইচ এ আই এম উবাঈদ উল্লাহ, সাহস ইউপিতে শেখ আব্দুল কুদ্দুস, ভান্ডারপাড়া হিমাংশু বিশ^াস, ডুমুরিয়া গাজী মোঃ হুমায়ুন কবির, রংপুর রাম প্রসাদ জোদ্দার, গুটুদিয়া কাজী আলমগীর হোসেন, মাগুরখালী বিমল কৃষ্ণ সানা। বটিয়াঘাটা উপজেলার বটিয়াঘাটায় পল্লব কুমার বিশ^াস সুরখালী এস, কে, জাকির হোসেন, ভান্ডারকোট মোঃ আবুল কালাম আজাদ আওয়ামী লীগের প্রার্থী ।

সাতক্ষীরা জেলার সাতক্ষীরা সদরের বাঁশদহায় মোঃ মফিজুর রহমান, কুশখালী মোঃ তাজউল ইসলাম, বৈকারী মোঃ আসাদুজ্জামান, ঘোনা মোঃ ফজলুর রহমান, শিবপুর শওকত আলী, ভোমরা শহিদুল ইসলাম, ধুলিহর মোঃ মিজানুর রহমান, ব্রহ্মরাজপুর মোঃ আলাউদ্দীন, আগরদাঁড়ী মোঃ মঈনুল ইসলাম, ঝাউডাংগা মোঃ আজমল উদ্দীন

বল্লী মোঃ বজলুর রহমান, লাবসা মোঃ নজরুল ইসলাম, ফিংড়ী মোঃ সামছুর রহমান আওয়ামী লীগের প্রার্থী।

বরিশাল বিভাগ ॥ বরগুনা জেলার বরগুনা সদরের এমবালিয়াতলীতে মোঃ নাজমুল ইসলাম, পটুয়াখালী জেলার পটুয়াখালী সদরের লোহালিয়ায় মোঃ কবির হোসেন, আউলিয়াপুর মোঃ হুমায়ুন কবির, মরিচবুনিয়া মোঃ আসাদুল ইসলাম (আসাদ), মাদারবুনিয়া মোঃ আমিনুল ইসলাম মাসুম, ছোটবিঘাই মোঃ আলতাফ হোসাইন হাওলাদার, বদরপুর তানজিন নাহার সোনিয়া, বড়বিঘাই মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান। বাউফলের নওমালায় মোঃ কামাল হোসেন, সূর্যমনি মোঃ আনোয়ার হোসেন। দশমিনার উপজেলার দশমিনা ইউেিত ইকবাল মাহামুদ, বেতাগী সানকিপুর মোঃ মসিউর রহমান, কলাগাছিয়া মোঃ দুলাল চৌধুরী, বকুলবাড়িয়া আবু জাফর খান, গজালিয়া মোঃ খালিদুল ইসলাম, ডাকুয়া বিশ^জিৎ রায়, গলাচিপা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন টুটু, পানপট্টি আবুল কালাম, চরকাজল মোঃ সাইদুর রহমান, চরবিশ^াস মোঃ তোফাজ্জেল হোসাইন বাবুল আওয়ামী লীগের প্রার্থী।

ভোলা জেলার দৌলতখানের মদনপুরে এ.কে.এম নাছির উদ্দিন, মেদুয়া মোঃ মনজুর আলম, চরপাতা কাজল ইসলাম তালুকদার, উত্তর জয়নগর মোঃ বশির, দক্ষিণ জয়নগর মোঃ আলমগীর হাং, চরখলিফা মোঃ শামীম হোসেন, ভবানীপুর মোঃ গোলাম নবী (নবু)। বরিশাল জেলার বরিশাল সদরের রায়পাশায় কড়াপুর আহম্মদ শাহরিয়ার, শায়েস্তাবাদ আরিফুজ্জামান মুন্না, চরমোনাই মোঃ নুরুল ইসলাম, চরকাউয়া মোঃ মনিরুল ইসলাম, চাঁদপুরা মোঃ হেলাল উদ্দীন খান, চন্দ্রমোহন এস এম মতিউর রহমান। আগৈলঝাড়ার রাজিহারে মোঃ ইলিয়াস তালুকদার, বাকাল বিপুল দাস, বাগদা আমিনুল ইসলাম বাবুল, গৈলা মোঃ শফিকুল হোসেন, রতœপুর গোলাম মোস্তফা সরদার। বানারীপাড়ার সৈয়দকাঠীতে মোঃ আনোয়ার হেসেন মৃধা আওয়ামী লীগের প্রার্থী ।

পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানীর পাড়েরহাটে মোঃ কামরুজ্জামান শাওন, পত্তাশী হাওলাদার মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, ইন্দুরকানী মোঃ মোবারক আলী হাওলাদার। পিরোজপুর সদরের শিকদারমল্লিকে মোঃ শহীদুল ইসলাম, দুর্গাপুর রামপ্রসাদ রায়, শংকরপাশা তোফাজ্জেল হোসেন মল্লিক স্বপন। নাজিরপুরের দীর্ঘা ইউপিতে আশুতোষ বেপারী, শাখারীকাঠী শেখ আখতারুজজামান, শ্রীরামকাঠী উত্তম কুমার মৈত্র আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।

ঢাকা বিভাগ (পাঁচটি জেলা) ॥ ঢাকার ধামরাই উপজেলার চৌহাট ইউপিতে আনোয়ার হোসেন, আমতাতে আরিফ হোসেন, বালিয়াতে মজিবর রহমান, যাদবপুরে আঃ মজিদ, বাইশাকান্দাতে অধ্যাপক মোঃ মিজানুর রহমান মিজান, গাংগুটিয়াতে আবদুল কাদের মোল্লা, সানোড়াতে খালেদ মাসুদ খান লাল্টু, সোমভাগে আজাহার আলী, কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার কাদিরজঙ্গল ইউপিতে শফিকুল ইসলাম, গুজাদিয়াতে সৈয়দ মাসুদ, কিরাটনে সিদ্দিক মিঞা, বারঘরিয়াতে কামরুল আহসান কাঞ্চন, নিয়ামতপুরে হেলিম, দেহুন্দাতে শফিকুল ইসলাম, সুতারপাড়াতে কামাল হোসেন, গুণধরে আবু ছায়েম রাসেল, জয়কাতে শফিকুল ইসলাম, জাফরাবাদে আবু সাদাৎ মোঃ সায়েম, নোয়াবাদে আবুল কালাম মনোনয়ন পেয়েছেন।

এছাড়া তাড়াইল উপজেলার তালজাঙ্গাতে সেলিম খান, রাউতিতে ইকবাল হোসেন তারিক, ধলাতে আফরোজ আলম ঝিনুক, জাওয়ারতে মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান, দামিহাতে এ কে মাইনুজ্জামান নবাব, দিগদাইড়ে গোলাম হোসেন ভুঞা, তাড়াইলে মোঃ কামরুজ্জামান, বাজিতপুর উপজেলার হুমাইপুর ইউপিতে রফিকুল ইসলাম, দিলালপুরে গোলাম কিবরিয়া নোভেল, বলিয়ারদিতে আবুল কাশেম, সরারচরে হাবিবুর রহমান স্বপন, হালিমপুরে ওমর ফারুক রাসেল, হিলচিয়াতে মাজহারুল হক নাহিদ, দিঘীরপাড়ে আঃ কাইয়ুম, পিরিজপুরে জাফর ইকবাল, মাইজচরে তাবারক মিয়া, গাজিরচরে জুয়েল মিয়া ও কৈলাগে কায়ছার এ হাবিব আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।

মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার সিংগাইরে শেখ মোঃ জাহিদুল ইসলাম, বায়রাতে দেওয়ান জিন্নাহ, বলধারাতে আবদুল মাজেদ খান, চান্দহরে শওকত হোসেন, চারিগ্রামে রিপন হোসেন, জার্মিত্তাতে আঃ হালিম, জয়মন্টপে শাহাদাৎ হোসেন, গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার সিংহশ্রী ইউপিতে আনোয়ার পারভেজ, রায়েদে শফিকুল হাকিম মোল্লা, টোকে এম এ জলিল, বারিধাবে রমিজ উদ্দিন সরকার, ঘাগটিয়াতে হারুন অর রশিদ, সনমানিয়াতে আবদুল মালেক ভুইয়া, কড়িহাতাতে মাহবুবুল আলম মোড়ল, তরগাঁওতে আয়বুর রহমান, কাপাসিয়াতে সাখাওয়াত হোসেন, চাঁদপুরে মিজানুর রহমান সরকার এবং দুর্গাপুরে এম এ গাফফার আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী। -সূত্র: অনলাইন

 

সম্পাদক ও প্রকাশক: সরদার মোঃ শাহীন
উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকুল ইসলাম সুজন
বার্তা সম্পাদক: ফোয়ারা ইয়াছমিন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: আবু মুসা
সহ: সম্পাদক: মোঃ শামছুজ্জামান

প্রকাশক কর্তৃক সিমেক ফাউন্ডেশন এর পক্ষে
বিএস প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড,
ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০ হতে প্রকাশিত।

বানিজ্যিক অফিস: ৫৫, শোনিম টাওয়ার,
শাহ মখ্দুম এ্যাভিনিউ, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
বার্তা বিভাগ: বাড়ি # ৩৩, রোড # ১৫, সেক্টর # ১২, উত্তরা, ঢাকা।
ফোন: ০১৯১২৫২২০১৭, ৮৮০-২-৭৯১২৯২১
Email: simecnews@gmail.com